মহামারীর বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেওয়ার খেসারত দিতে হল নোভাক জোকোভিচকে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা। এটিপি-ডব্লিউটিএ এবং গ্র্যান্ড স্লাম শুরুর আগে ক্রোয়েশিয়ায় একটি প্রদর্শনী টুর্নামেন্ট আদ্রিয়া ট্যুরের আয়োজন করেছিলেন জোকার। সেখানেই করোনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে অংশ নিয়েছিলেন বিশ্বের বেশ কিছু টেনিস তারকা। । করোনা আবহেও যেখানে সোশ্যাল ডিসটেন্সিংয়ের তোয়াক্কা করা হয়নি। গ্যালারি ভরতি দর্শকদের মাঝেই কোর্টে নেমেছেন খেলোয়াড়রা। এমনকী ম্যাচ শেষে করমর্দনও করেছেন।  সেখানেই অংশ নিয়েছিলেন  বুলগেরিয়ান টেনিস তারকা গ্রিগর দিমিত্রভ, বোরনা কোরিচ। ইতিমধ্যেই এই দিমিত্রভ ও বোরনা কোরিচ কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। 

আরও পড়ুনঃপাকিস্তানে ক্রিকেট দলে করোনার থাবা,আক্রান্ত তিন ক্রিকেটার

আরও পড়ুনঃদক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটে করোনার থাবা,আক্রান্ত একসঙ্গে ৭ জন

গ্রিগর দিমিত্রভ, বোরনা কোরিচ এই দুই টেনিস তারকা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই আশঙ্কার পারদ চড়ছিল। শেষমেশ সেই আতঙ্কাই সত্যি হল। মারণ ভাইরাস এবার থাবা বসাল নোভাক জকোভিচের শরীরে। এদিন বিশ্বের পয়লা নম্বর টেনিস তারকা জানিয়েছেন, বেলগ্রেডে এসে আমি করোনা পরীক্ষা করাই। তাঁর ও তাঁর স্ত্রী জেলেনার রিপোর্ট পটিজিভ এসেছে। তবে সন্তানদের শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়নি বলেই জানান তিনি। আপাতত ১৪ দিন সেলফ আইসোলেশনে থাকবেন তারকা। চিকিৎসকেরও পরামর্শ নিচ্ছেন জকোভিচত ও তার স্ত্রী। আর পাঁচদিন পর ফের টেস্ট করবেন।

আরও পড়ুনঃকরোনা ভাইরাসের জন্য স্থগিত হয়ে গল কিউইদের বাংলাদেশ সফর

আরও পড়ুনঃকরোনা যোদ্ধাদের সম্মান জানাতে অভিনব উদ্যোগ ইসিবির

কিন্তু বিশ্ব জুড়ে যেখানে করোনা ভাইরাস ক্রমশ নিজের থাবা বিস্তার করছে, সেখানে কীভাবে এই পরিস্থিতি কোনও প্রদর্শনী প্রতিযোগিতার আয়োজন করলেন জোকার তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। শুধু টেনিস প্রেমীরাই নন, জকোভিচের ভক্তরাও সমালোচনা করছেন জোকারের এই ভূমিকার। যদিও, দিমিত্রভের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসার পর টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছিলেন সার্বিয়ান তারকা। আপাতত জোকারের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। তার দ্রুত আরোগ্যও কামনা করেছে টেনিস বিশ্ব।