Galwan River  

(Search results - 4)
  • <p>इस तरह कश्मीर से लेह पहुंचा जाता है।</p>

    International5, Jul 2020, 11:06 AM

    গালওয়ানে প্রকৃতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিচ্ছে চিনা সেনার দিকে, রীতিমত কোনঠাসা অবস্থা লাল ফৌজের

    গালওয়ান উপত্যকায় প্রাকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে পিছু হাঁটলেও এখনও সেনা সমাবেশ কমায়নি বেজিং। গালওয়ানের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবার কয়েক হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। যা গালওয়ানের স্ট্যান্ড অফ পয়েন্ট থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। কিন্তু জড়ো হওয়া পিপিলস লিবারেশন আর্মির সামনে বড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে প্রকৃতি। কারণ প্রকৃতির নিয়ম অনুযায়ী এই সময় গালওয়ানের রীতিমত বেড়ে যায় জলের স্তর। যা ডেকে আনতে পারে বন্যা পরিস্থিতিও। 

  • undefined

    India 28, Jun 2020, 10:19 AM

    'ভারতকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়তে'ই কি চিনের ১৬টি সেনা ছাউনি, গালওয়ানে ভারী হচ্ছে 'ড্রাগনের পায়ের ছাপ'

    যত দিন যাচ্ছে সীমান্তবর্তী এলাকায় ততই ভারী হচ্ছএ ড্রাগনের পায়ের ছাপ। সেনা সরানোর কথা দূর অস্ত। ধীরে ধীরে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ সীমারেখার ধার ঘেঁসে সৈন্য জামায়েত করছে চিনের পিপিলস লিবারেশন আর্মি। সদ্যো পাওয়া একটি স্যাটেলাইট ইমেজে দেখা যাচ্ছে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা সংলগ্ন গালওয়ান নদী বরাবর বেশ কয়েকটি ত্রিপলের ছাউনি তৈরি হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে এগুলি লাল ফৌজের সেনা ছাউনি। 

  • <p>12- 2013 : चीन की सेना ने लद्दाख के दीपसंग घाटी में घुसपैठ की। बातचीत के बाद दोनों देशों के बीच तनाव खत्म हुआ। अक्टूबर में दोनों देशों के बीच बॉर्डर डिफेंस को ऑपरेशन अग्रीमेंट हुआ।&nbsp;</p>

    India 19, Jun 2020, 5:07 PM

    চিনা হুমকি উড়িয়েই গালওয়ান নদীর উপর তৈরি হল ভারতীয় সেতু, এই বছরই শেষ হবে রাস্তার কাজ

    চিনের ছিল প্রবল আপত্তি। তারপরও গালওয়ান নদীর উপর সেতু গড়ল ভারত। গালওয়ান সংঘর্ষের জায়গার খুব কাছেই। যুদ্ধকালীন তৎপড়তায় চলছে ২৫৫ কিমি রাস্তা তৈরির কাজ।

     

  • undefined

    India 18, Jun 2020, 6:34 PM

    গালওয়ান নদীর গতি আটকাতে বোল্ডার ফেলছে চিন, স্যাটেলাইট ইমেজে ধরা পড়েছে যুদ্ধ প্রস্তুতি

    গালওয়ান নদীর গতিপথ ঘুরিয়ে দিতে বা প্রবাহ বন্ধ করতে মরিয়া চিন।  নদীর গতিপথ আটকাতে ফেলা হয়েছে প্রচুর বুল্ডোজার। তেমনই জানাযাচ্ছে একটি সূত্রে। সোমবার রাতে যেখানে যুদ্ধ হয়েছিল এই এলাকা তারথেকে খুব একটা বেশি দূরে নয়। এক কিলোমিটারের মধ্যেই এই ভয়ঙ্কর কাণ্ডকারখানা ঘটিয়েছে চিন। বুধবার রাতে এই এলাকাতেই হয়েছিল সামরিক বৈঠক। এটি গালওয়ান উপত্যকার ১৪ নম্বর পেট্রোল পয়েন্টের খুবই কাছে। কিন্তু দফায় দফায় বৈঠক হলেও এখনও পর্যন্ত সেনা বাহিনী সরাতে কোনও রকম উদ্যোগ গ্রহণ করেনি বেজিং।