বুধবার সাহাগঞ্জে মমতার সভায় তৃণমূলে যোগ দিলেন এক ঝাঁক টলিউডের সেলেবরা। জুন মালিয়া থেকে রাজ চক্রবর্তী , সায়নী ঘোষ, কাঞ্চন মল্লিক  সহ  ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারি এবং আরও অনেকেই তৃণমূলে যোগ দিলেন এবং সকলের মুখে একটাই কথা,' খেলা হবে'। মমতা সভায় বক্তব্যের শুরুতেই তা উসকে আরও বললেন,'বার পোস্টের উপর দিয়ে বল যাবে'।

আরও পড়ুন, 'মোদি এলে ধ্বংস, দিদি এলে সৃষ্টি', বুধবার মমতার সভার আগে পোস্টার পড়ল চুঁচুড়ার মাঠে 

এদিন মমতা বলেন, '৫-১০ টাকা তুললেই তোলাবাজ। তৃণমূল যদি তোলাবাজ হয় তাহলে দাঙ্গাবাজ হল বিজেপি। কয়লা চোরগুলির হোটেলে থাকছেন, খাচ্ছেন আর বাংলার মা বোনেদের কয়লা চোর বলছেন', বলে মোদীর সভার পর পাল্টা নিশানা করেন মমতা। প্রসঙ্গত, রাজ্যে কয়লা চুরি বা পাচার কাণ্ডে জল অনেকদূর গড়িয়েছে। তৃণমূলের যুবরাজ অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায়ের বাড়িতে সিবিআই হানা পড়েছে। এরপরেই তাই ক্ষোভ প্রকাশ করেন মমতা। পাশাপাশি, তৃণমূল ছেড়ে বেরোতেই শুভেন্দুর মুখে শোনে সারা বাংলা পিসির তোলাবাজ ভাইপোর কথা। কাঁথির সভায় বিজেপি যোগ দিয়েই বাক্যবাণ ছুড়েছিলেন সেদিন শুভেন্দু। কিন্তু তারপরে এই অবধি বাংলার এখাধিক সভায় বিজেপির শীর্ষ নের্তৃত্বরা টুইটার সহ সোশ্যাল পেজে, সভামঞ্চে তৃণমূলের গায়ে তোলাবাজের তকমা সেঁটে দিয়েছিয়েছেন। বুধবারই প্রথম তার উত্তর দিলেন মমতা। আম্ফানে ত্রিপল চুরি. রেশন চুরি, কাটমানি সহ প্রত্যেকটা তোপেরই এদিন পাল্টা জবাব দেন মমতা। উল্টে বিজেপিকে প্রশ্ন ছোড়েন,' আপনারা কি ক্যাডবেরি খান'। উত্তরটা অবশ্যই তুলে রাখবে বিজেপি, বলে আশা রাজনৈতিক মহলের। 

আরও পড়ুন, 'পুলিশ ক্ষমতার অপব্যবহার করছে', আজ আদালতে ঢোকার মুখে বিস্ফোরক রাকেশর ২ ছেলে 

 তবে এটুকু বলেই থেমে থাকেননি তিনি। মোদী বাংলায় যে কথা বলেন, তারও রহস্যভেদ করলেন মমতাই। মমতা এদিন বলেন, ট্রান্সপারেন্ট কাঁচের ওপারে বাংলা কথাগুলি সাজানো থাকে, সেগুলি দেখেই মোদী বাংলায় কথা বলে সবাইকে চমকে দেন।' আদৌ কিছু বাংলায় বলতে পারেন না যে তিনি বলে খোঁচা দেন মমতা। তবে এদিন ভোটের আগে নতুন ভোটার -ছাত্রছাত্রীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন  মমতা।