নন্দীগ্রামে এসে পৌছালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 'নন্দীগ্রাম আন্দোলনে নিখোঁজ ১০ পরিবারকে আর্থিক সাহায্য় করবে রাজ্য সরকার। পরিবার পিছু ৪ লক্ষ্য টাকা করে সাহায্য করা হবে। প্রতিশ্রুতি দিলেন মমতা। এই সভার দিকে তাঁকিয়ে আছে সারা বাংলা। এদিকে সভায় অনুপস্থিত শিশির অধিকারী এবং দিব্য়েন্দু অধিকারী।

 আরও পড়ুন, 'ঈশ্বর-আল্লা ওদের ক্ষমা করো-ভুল করলে আমাকে থাপ্পড় মেরো', নন্দীগ্রামে একুশের বীজ পুতলেন মমতা 



 


নন্দীগ্রামের সভা মঞ্চ থেকে মমতা বলেন,' রাজনীতিতে একদল আছে, যারা ত্যাগী। তাঁরা কোথাও যাবে না। কিন্তু আরেক দল আছেন, তাঁদের অনেক সম্পত্তি। প্রচুর টাকা-টাকা গুলি হয়েছে ঢাকা। সেই ঢাকা টাকা গুলি রক্ষিত করার জন্য জায়গাটা চাই। বিজেপি নেতারা দিল্লি যেতে বলছেন। হয় জেলে, নয় ঘরে। তৃণমূল করলে জেলে ভরবে। আর বিজেপি করলে কি, বলে প্রশ্ন করেন মমতা। এরপর নিজেই উত্তর দেন, বিজেপি করলে তুমি যেন ওয়াশিং মেশিন। কালো হয়ে ঢুকবে আর সাদা হয়ে বেরিয়ে আসবে। ওয়াশিং পাউডার ভাজ পা, এই হয়ে গিয়েছে বিজেপি।'

আরও পড়েন, 'আগের দলে কোনও সম্মান পাইনি আমি', 'কাল উত্তর দেব'-ইটবৃষ্টি শেষে বললেন শুভেন্দু 

 

বিজেপিকে আবারও খোঁচা মেরে তিনি বলেন, আমার অনেক শুভেচ্ছা থাকবে। তোমরা প্রধানমন্ত্রী হও। রাষ্ট্রপতি হও। কিন্তু দয়া করে বাংলাকে বিক্রি করতে যেও না। ভারতবর্ষের নেতা হও, বিশ্বের নেতা হও। কিন্তু আমি বেঁচে থাকতে বাংলা বিক্রি হতে দেবো না। এটা আমার শপথ, অঙ্গীকার, প্রতিজ্ঞা, চ্যালেঞ্জ যে কোনও কিছু মনে করতে পারেন, বললেন মমতা।