প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকেই অনুসরন করলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি। আসানসোলের পুর-প্রশাসকের পদ ছাড়লেন তিনি। শুভেন্দু দল ছাড়ার পরই পুরসভায় নিজে গিয়ে পদ ছাড়ার ইস্তফা পত্র দেন জিতেন্দ্র। আগামীকাল মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক রয়েছে তাঁর। তার আগেই নিজের পদ ছাড়লেন জিতেন্দ্র। শুভেন্দুর পর জিতেন্দ্র তিওয়ারিরও বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা উস্কে দিল।

আরও পড়ুন-অবশেষে তৃণমূল-শুভেন্দু অধিকারী বিচ্ছেদ, মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের কাছে পৌঁছে গেল পদত্যাগপত্র

প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকেই অনুসরন করলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি। আসানসোলের পুর-প্রশাসকের পদ ছাড়লেন তিনি। শুভেন্দু দল ছাড়ার পরই পুরসভায় নিজে গিয়ে পদ ছাড়ার ইস্তফা পত্র দেন জিতেন্দ্র। আগামীকাল মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক রয়েছে তাঁর। তার আগেই নিজের পদ ছাড়লেন জিতেন্দ্র। শুভেন্দুর পর জিতেন্দ্র তিওয়ারিরও বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা উস্কে দিল।

আগামী শনিবার রাজ্য সফরে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তার আগেই তৃণমূল ছেড়ে দিলেন হেভিওয়েট নেতারা। শুভেন্দুর পথ ধরেই দল ও পদ ছাড়লেন আসানসোলের পুর প্রশাসক জিতেন্দ্র তিওয়ারি। আজ আসানসোল পুরকর্মীদের এক সভা পদ ও ছাড়ার কথা ঘোষনা করেন জিতেন্দ্র। পুর-প্রশাসক পদের ইস্তফার জন্য চিঠি দিয়েছেন নগরোন্নয়ন দফতরের সচিবকে। একইসঙ্গে ইস্তপা পত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন পুর ও নগরোন্নয়মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমকেও।

দলের প্রতি ক্ষোভ নিয়ে আগামিকাল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের সঙ্গে বৈঠকের কথা ছিল জিতেন্দ্র তিওয়ারির। কিন্তু সেই বৈঠকের আগেই দল ও পদ থেকে ইস্তফা দিলেন জিতেন্দ্র। আসানসোলের উন্নয়নের স্বার্থে তিনি পদত্য়াগ করেছেন বলে জানিয়েছেন। আসানসোলে স্মার্ট সিটি প্রকল্পের ২ হাজার কোটি টাকা এবং বর্জ্য নিষ্কাশন প্রকল্পে দেড় হাজার কোটি টাকা রাজ্য সরকার না দেওয়ায় সরকারের প্রতি ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন জিতেন্দ্র। রাজনৈতিক কারণে ওই টাকা দেওয়া হয়নি বলে দাবি করেন তিনি। তাঁর ইস্তফা পত্রে নিজের ক্ষোভ কথা লিখেছেন জিতেন্দ্র।