নিমতাকাণ্ডে মমতাকে ধনেয়াখলিতে এসে ধিক্কার নাড্ডার। এদিন তৃণমূল দফার নির্বাচনী প্রচারে রাজ্য়ে এসেছেন জেপি নাড্ডা। তিনি কৃষি, পরিবহণ, স্বাস্থ্য প্রকল্প নিয়েও মমতার সরকারকে আক্রমণ করেন, যে কীভাবে কেন এতদিন ধরে কেন্দ্রীয় সরকারের সাহায্য পাওয়া সত্বেও একাধিক প্রকল্পের সুবিধা বাংলার মানুষের কাছে পৌছতে দেওয়া হয়নি, এনিয়ে মন্তব্য করেছেন নাড্ডা।

আরও পড়ুন, 'ধর্ম নিরপেক্ষ সরকার গড়ে রক্ষা করুন বাংলাকে ', নন্দীগ্রামে ভোটযুদ্ধের আগে বুদ্ধ-বার্তা 


  এদিন কৃষি ইস্যু নিয়ে নাড্ডা বলেছেন, মোদীজী বাংলার কৃষকদের সম্মান দিতে চান। কৃষক সম্মান নিধির টাকা পাঠানোর জন্য দিদির কাছে কৃষকদের লিস্ট চেয়েছেন। কিন্তু দিদি বলেছেন দেব না, নাম পাঠাব না। এদিন তিনি পরিবহণ ইস্য়ু এবং স্বাস্থ্য প্রকল্প নিয়েও আরও বলেছেন, জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণের জন্য মোদীজী বাংলার জন্য ২৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন। তিনি এসব করছেন শুধুমাত্র বাংলার বিকাশ করার জন্য।এবার আপনারা বিজেপি সরকার তৈরি করুন প্রথম মন্ত্রিসভা বৈঠকেই বাংলায় আয়ুষ্মান ভারত যোজনা চালু করার কাজ শুরু হবে।' তিনি আরও বলেছেন, 'নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে, তাই জন্য মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায় ভয় পেয়েছেন। এবং তৃণমূলের নেতারাও নির্বাচন কমিশন পর্যন্ত পৌঁছে গেছেন।'

 

 

আরও পড়ুন, 'কি মা-বোনেরা গুন্ডারা এলে হাতা-খুন্তি-দিয়ে আদর করবেন তো', নন্দীগ্রামে নিমতাকাণ্ডে নীরব মমতা 

 

এদিন নিমতাকাণ্ডে তৃণমূল সুপ্রিমোকে ধিক্কার জানিয়ে বলেছেন,  'মমতা দিদি মা-মাটি মানুষের স্লোগান দিয়ে ক্ষমতায় এসেছেন-এসে তিনি মায়ের কি হাল করেছেন, তা শোভা মজুমদারের মৃত্যুতেই স্পষ্ট।'উল্লেখ্য, সোমবার নিমতায় আক্রান্ত বৃদ্ধার মৃত্যুর পর ইতিমধ্যেই 'তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতির বাহিনী'-র দিকেই অভিযোগের আঙুল উঠেছে।   প্রসঙ্গত, ২৭ ফেব্রুয়ারি রাতে নিমতা বাসিন্দা গোপাল মজুমদার ও তার ৮৫ বছর বয়সী বৃদ্ধা মা শুভ্রা মজুমদারকে মারধর করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বলে অভিযোগ। এই ঘটনার পর আহত গোপালের মা শুভ্রা মজুমদারকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মাসখানেক হাসপাতালে থাকার পর বাড়িতেই তার চিকিৎসা চলছিল। চিকিৎসারত অবস্থায় সোমবার সকালে শুভ্রা মজুমদারের মৃত্যু হয়। এই মৃত্যুর জন্য তৃণমূল কংগ্রেসকে দায়ী করেছে মৃতের পরিবার। এদিকে এই ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি করেছে বিজেপি।