শনিবার শুভেন্দুর বৈঠক ঘিরে ব্যাপক বচসা বাধে  খিদিরপুরের হেস্টিংসে।  খিদিরপুর হেস্টিংস হাউজে বিজেপি পার্টি অফিসের সামনে তৃণমূল-বিজেপি মধ্য়ে ঝামেলা লেগে যায়। ওই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা  সামাল দিতে  ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশবাহিনী।  


শুভেন্দুর বৈঠক ঘিরে ব্যাপক বচসা। হেস্টিংসে বিজেপি অফিসের বাইরে ব্যপক অশান্তি। খিদিরপুর হেস্টিংস হাউজে বিজেপি পার্টি অফিসের সামনে তৃণমূল-বিজেপি মধ্য়ে ঝামেলা লেগে যায়।   খিদিরপুর হেস্টিংস হাউজে বিজেপির দফতরে ৪৩ জনের সঙ্গে বৈঠক ছিল শুভেন্দুর। কিন্তু এই বৈঠক ঘিরেই শুরু হয় ব্যাপক বচসা। বিজেপি অফিসের বাইরে সদ্য বিজেপি-তে যোগ দেওয়া সাংসদ সুনীল মণ্ডলের গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে তৃণমূল কর্মীরা। এমনকি শেষ পর্যন্ত সুনীল মণ্ডলের গাড়ির সামনে শুয়ে পড়ে তৃণমূল কর্মী ও সমর্থকরা।

 

প্রসঙ্গত, তৃণমূলের ৭৫ নম্বর ওয়ার্ডের একটি মিটিং ছিল। পাশাপাশি হেস্টিংস হাউসে শনিবার বিজেপির তরফ থেকে মিটিং ছিল। শুভেন্দু অধিকারী সহ অর্জুন অর্জুন সিং ও সুনীল মন্ডল সহ বিজেপি নেতারা এসেছিল। বেশকিছু যোগদান ছিল  তৃণমূল থেকে বিজেপিতে। আর এটাই মেনে নিতে না পেরে ঝামেলা বাধায় তৃণমূল, বলে মত রাজনৈতিক মহলে। এদিকে ওই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা  সামাল দিতে  ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশবাহিনী।