নিমতাকাণ্ডে বিজেপি কর্মীর আক্রান্ত বৃদ্ধা মায়ের মৃত্যু। দীর্ঘ একমাসের লড়াই শেষে আর পারলেন না, প্রাণ হারলেন নিমতার আশি বছরের বৃদ্ধা। উল্লেখ্য গত ২৭ ফেব্রুয়ারি তিনি আক্রান্ত হয়েছিলেন। অভিযোগ, উত্তর দমদম বিধানসভার নিমতার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি কর্মী গোপাল মজুমদারের বাড়িতে ঢুকে তাঁর ওই বৃদ্ধা মাকে মারধোর করে তৃণমূল। এই ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন অমিত শাহ-জেপি নাড্ডা। দোষীদের ক্ষমা না করার আর্জি জানিয়েছেন বিজেপির অমিতাভ চক্রবর্তী। 'যোগ্য জবাব দেবে বাংলার মানুষ' বললেন লকেটও। 


প্রসঙ্গত, ২৭ ফেব্রুয়ারি রাতে নিমতা বাসিন্দা গোপাল মজুমদার ও তার ৮৫ বছর বয়সী বৃদ্ধা মা শুভ্রা মজুমদারকে মারধর করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বলে অভিযোগ। এই ঘটনার পর আহত গোপালের মা শুভ্রা মজুমদারকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মাসখানেক হাসপাতালে থাকার পর বাড়িতেই তার চিকিৎসা চলছিল। চিকিৎসারত অবস্থায় আজ সকালে শুভ্রা মজুমদারের মৃত্যু হয়। এই মৃত্যুর জন্য তৃণমূল কংগ্রেসকে দায়ী করেছে মৃতের পরিবার। খবর পেয়ে আজ সকালে গোপালের বাড়িতে পৌঁছে যান উত্তর দমদমের বিজেপি প্রার্থী অর্চনা মজুমদার। তিনি পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। এবং এই মৃত্যু বিচার দাবি করেন। জানা গেছে বিজেপির পক্ষ থেকে এই ঘটনার প্রতিবাদে আজ উত্তর দমদমে মিছিল বের করা হবে।

 

 

আরও পড়ুন, চোখ রাঙানিতে ভয় পান না, পাল্টা জবাব দিতেও ছাড়ছেন না অভিষেক  

 

 


অমিত শাহ বলেছেন, 'তৃণমূলের গুন্ডাদের নির্মম অত্যাচারে আজ বাংলার কন্যা শোভা মজুমদার মহাশয়ার মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকাহত। এই পরিবারের গভীর ক্ষত আর ব্যথা দীর্ঘদিন মমতা দিদিকে বিদ্ধ করবে।হিংসামুক্ত ভবিষ্যত গড়তে,বাংলার মা-বোনেদের জন্য সুরক্ষিত রাজ্য গড়তে বাংলা লড়াই করবে।' জেপি নাড্ডা বলেছেন,' নিমতার বৃদ্ধ 'মা' শোভা মজুমদারের আত্মার শান্তি কামনা করি । ছেলে গোপাল মজুমদার বিজেপি করার জন্য আজ তাঁকে প্রাণ দিতে হোলো । বিজেপি এই বলিদান কে সর্বদা মনে রাখবে । ইনি ও বাংলার 'মা' ছিলেন ইনি ও বাংলার 'মেয়ে' ছিলেন । বিজেপি সবসময় বাংলার মা ও মেয়েদের সুরক্ষার জন্য লড়াই করবে।বিজেপির অমিতাভ চক্রবর্তী বলেছেন, মনে আছে নিমতা কাণ্ডের সেই 'মা' কে নৃশংস ভাবে মেরেছিল তৃণমূল বাহিনীরা তাঁর ছেলে বিজেপি করার জন্য। এতদিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছিলেন আজ আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন,ওঁনার আত্মার চির শান্তি কামনা করি। বাংলা কখনও এই হত্যাকারীদের ক্ষমা করবেন না। বাংলা কোনো রক্ত চোষা খুনি মেয়ে কে চায় না। ওদিকে লকেট বলেছেন, 'বাংলার মানুষ  এই নির্মমতার যোগ্য জবাব  দেবে'।