Asianet News BanglaAsianet News Bangla

By Election-গোসাবায় BJP প্রার্থী বিরুদ্ধে টাকা বিলির অভিযোগ, কমিশনে তৃণমূল

গোসাবায় বিজেপি প্রার্থী বিরুদ্ধে টাকা বিলির অভিযোগ।  নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছে তৃণমূল।

 

 

BJP candidate in Gosaba has been accused of distributing money RTB
Author
Kolkata, First Published Oct 30, 2021, 7:40 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

গোসাবায় (Gosaba By Election) বিজেপি প্রার্থী (BJP Candidate) বিরুদ্ধে টাকা বিলির অভিযোগ।   উপনির্বাচনের আগের রাত থেকেই উত্তপ্ত গোসাবা। বিজেপি প্রার্থী পলাশ রাণার বিরুদ্ধে এলাকায় টাকা বিলির অভিযোগ। ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনে (Election Commission) অভিযোগ জানিয়েছে তৃণমূল (TMC)।

আরও দেখুন, Bypoll Live Updates - রাজ্যের চার আসনে শুরু ভোটগ্রহণ, কড়া নিরাপত্তায় চার বিধানসভা  

শনিবার বাংলার ৪টি বিধানসভা আসন- গোসাবা, শান্তিপুর, খড়দহ এবং দিনহাটাতে উপনির্বাচন (By Election)। উপনির্বাচনের আগের রাত থেকেই উত্তপ্ত গোসাবা। বিজেপি প্রার্থী পলাশ রাণার বিরুদ্ধে এলাকায় টাকা বিলির অভিযোগ। লিফলেট বিলি করতে গিয়ে টাকা বিলির ইস্যুতে পুলিশের (Police) কাছে পর্দা ফাঁস হয়ে যায় বলে খবর। এরপরেই নির্বাচন কমিশনে (Election Commission) অভিযোগ জানিয়েছে তৃণমূল (TMC)। তৃণমূলের অভিযোগ, নির্বাচনী বিধি ভেঙে এলাকায় এই সব লিফলেট রাতের অন্ধকারে বিলি করছে বিজেপি। এই লিফলেট বিলি করছিলেন খোদ গোসাবা উপনির্বাচনের বিজেপি প্রার্থী পলাশ রাণা বলে অভিযোগ। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি নের্তৃত্ব। উল্লেখ্য, গোসাবায় তৃণমূলের হয়ে প্রার্থী সুব্রত মন্ডল। এবং গোসাবায় বিজেপি প্রার্থী পলাশ রাণা।  সিপিআইএম-র প্রার্থী সৌমেন মাহাতো ।

আরও পড়ুন, By Election- শোভনদেবকে ঢুকতে দিতে বাধা, পাল্টা BJP প্রার্থীকে ঘিরে গো ব্যাক স্লোগান,উত্তপ্ত খড়দহ

ভোট শুরু আগে থেকেই কড়া নিরাপত্তায় কেন্দ্রীয় বাহিনী (Central Force)। যদিও ইতিমধ্য়ে খড়দহ বিধানসভার ভোট কেন্দ্রে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠেছে। প্রসঙ্গত,  অক্টোবারের শুরুতেই প্রথমে কমিশনের তরফে বলা হয়েছিল, দিনহাটা, শান্তিপুর, গোসাবা  ও খড়দহ বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনকে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য ২৭ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে। তার মধ্যে থাকবে বিএসএফ,সিআরপিএফ, এএসৃবি এবং সিআইএসএফ ( BSF, CRPF, SSB  ও CISF)। এরপরই সেই বাহিনীর সংখ্যা বাড়িয়ে করা হয় ৮০। তারপর ফের বাড়ানো হয় বাহিনীর সংখ্যা। এখন সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯২। এর মধ্যে দিনহাটায় থাকবে ২৭ কোম্পানি, শান্তিপুরে  ২২ কোম্পানি, খড়দহে ২০ কোম্পানি ও গোসাবায় ২৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করছে কমিশন। কমিশন সূত্রে খবর, ১০০ শতাংশ বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন থাকবে। একটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে একটি বুথ থাকলে ৪ জন কেন্দ্রীয় জওয়ান থাকবে। একটা ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ২ থেকে ৪টি বুথ থাকলে ৮ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর (Central Force) জওয়ান থাকবেন। তবে ৫ থেকে ৮টি বুথ থাকলে ১৬ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন থাকবে এবং ৯ বা তার বেশি বুথ থাকলে ২৪ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

আরও দেখুন, বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios