করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিশাল ঘোষণা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার তিনি জানালেন রাজ্য সরকার, এই রাজ্যে সরাসরি কোভিড-১৯ আক্রান্ত ও সন্দেহভাজনদের চিকিৎসা পরিষেবায় জড়িত, সব স্তরের স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৫ লক্ষ টাকা করে জীবন বীমা দেবে। এই বীমার সুবিধা পাবেন রাজ্যের প্রায় ১০ লক্ষ স্বাস্থ্যকর্মী। এরমধ্যে ডাক্তার, নার্স, থেকে শুরু করে অ্য়াম্বুল্য়ান্স চালক, আশা কর্মী, পুলিশ - প্রত্যেকেই পড়ছেন।

ইতিমধ্যেই বাকি ভারতের মতো পশ্চিমবঙ্গবাসীর মনেও করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। বিশেষ করে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে রাজ্যের প্রথম কোভিড-১৯ রোগীর খবর মেলার পর থেকে সেই আতঙ্ক আরও বেড়েছে। তার উপর সেই রোগী করোনাভাইরাস শরীরে নিয়েই কলকাতার বিভিন্ন জনবহুল এলাকায় ঘুরে বেড়িয়েছেন। শুধু কলকাতাতেই নয়, জেলায় জেলায় হাসপাতালগুলিতে বহু সংখ্যক রোগী করোনা আক্রান্ত সন্দেহে ভর্তি আছেন।

তবে বিশ্বজুড়ে, এখন সকলেই চিন্তিত স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে। চিকিৎসক, নার্স, অ্যাম্বুল্যান্স কর্মীদের উপর চাপ অসম্ভব বেড়েছে। সেই সঙ্গে চিকিৎসা কর্মীরা যেহেতু সবসময়ই কোভিড-১৯ রোগীদের আশপাশে থাকছেন, তাই তাঁদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও অনেক বেশি। এই পরিস্থিতিতে ডাক্তার-নার্স থেকে শুরু করে সব স্তরের চিকিৎসা কর্মীদের মনেই কোভিড-১৯ রোগীকে পরিষেবা দিতে গিয়ে মনে দ্বিধা কাজ করতে পারে। পশ্চিমবঙ্গে অন্তত বীমার সুবিধাটা থাকায় অনেক খোলা মনে কাজ করতে পারবেন তাঁরা।