ভারত গ্য়াস কোম্পানির ট্য়াঙ্কারের গ্যাস লিক হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল বাগনানের কয়েকটি গ্রামে।হলদিয়া থেকে কলকাতা যাওয়ার পথে জাতীয় সড়কে উল্টে যাওয়া এলপিজি  ট্য়াঙ্কার থেকে গ্যাস লিক হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল বাগনান থানা এলাকার কয়েকটি গ্রামে। যার দরুন জাতীয় সড়কের একটি লেন দিয়ে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে কোনওভাবে যানবাহন চলাচল অব্যাহত রাখা হয়।

আরও পড়ুন, পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা যাওয়া যাবে না শৌচাগারে, নয়া বিধি উচ্চমাধ্যমিকে

বুধবার বেলা ১১ টা নাগাদ বাগনানের চন্দ্রপুর এলাকায় ছয় নম্বর জাতীয় সড়কের উপর এই ঘটনাটি ঘটে। ভারত গ্যাস কোম্পানির  একটি রান্নার গ্যাস বোঝাই ট্যাঙ্কার এদিন সকালে হলদিয়া থেকে কলকাতা অভিমুখে রওনা দেয় বলে জানা যায়। ট্যাংকারটিতে ৫০০ কেজি রান্নার গ্যাস ছিল বলে ভারত গ্যাস কোম্পানির  কর্তারা জানান। ট্যাঙ্কারটি বাগনানের লাইব্রেরী মোড় পেরিয়ে যাওয়ার সময় চন্দ্রপুরের কাছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডিভাইডারে ধাক্কা মেরে উল্টে যায়। অত্যন্ত ঝাকুনিতে ট্য়াঙ্কারের গ্যাস ট্যাংকের তিনটি ভালভ কেটে যায়। তখনই সেখানে গ্যাস লিক হতে থাকে। 

আরও পড়ুন, দোলের পরেই সুখবর, একলাফে দাম কমল পেট্রোল-ডিজেলের

সূত্রের খবর, স্থানীয় বাসিন্দারা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে সর্বপ্রথম এলাকা থেকে মানুষজনকে সরিয়ে নিয়ে যায়। আশপাশের গ্রামগুলিতে লোডশেডিং করে দেওয়া হয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের আগুন জ্বালতে নিষেধ করা হয়। এমনকি তাদের রান্নাও বন্ধ করে দেওয়া হয়। আতঙ্কে এলাকার লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে দূরে চলে যায়। এদিকে দমকল ও গ্যাস কোম্পানির লোকজন এসে বেশ কিছুক্ষণের চেষ্টায় ট্যাঙ্কার থেকে গ্যাস লিক হওয়া বন্ধ করেন। তবে এদিন বিকেল পর্যন্ত রাস্তায় উল্টে থাকা ট্যাংকারটিকে তোলা সম্ভব হয়নি। জাতীয় সড়কের একটি লেন দিয়ে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে কোনওভাবে যানবাহন চলাচল অব্যাহত রাখা হয়।

আরও পড়ুন, ২০০টির কাছাকাছি শূন্য় পদ, পুরভোটের আগে ফের শিক্ষক নিয়োগ রাজ্যে