বাঁকুড়ার পাত্রসায়ের থানার কাঁকরডাঙ্গায় তুমুল উত্তেজনা ছড়াল। গুলিতে জখম হয়েছে এক ছাত্র ও দুই বিজেপি কর্মী। বিজেপি দাবি, এখানেও পুলিশ গুলি চালিয়েছে। আহতদের নিয়ে আসা হয়েছে বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

বাঁকুড়া পাত্রসায়ের থানার কাকড়ডাঙ্গা শুভেন্দু অধিকারীর জনসংযোগ যাত্রাকে কেন্দ্র করে গণ্ডোগোল বাধে। বিজেপির দাবি, ঘটনাস্থলে উপস্থিত বিজেপি কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে  পুলিশ গুলি চালায়।

এদিউন বিকেলে বাঁকুড়া পাত্রসায়ের থানার  শুভেন্দু অধিকারী জনসংযোগ যাত্রা কর্মসূচি ছিল। কাকড়ডাঙ্গা মোড়ের কাছে বেশ কিছু বিজেপি কর্মী সমর্থক হাজির ছিলেন। হাজির কর্মীরা একজোট হয়ে জয় শ্রী রাম ধ্বনী দেয়। সেই সময়েই  উপস্থিত পুলিশ কর্মীরা স্থানীয় বিজেপি নেতা তমাল কান্তি গুই কে মারধর করে। এর প্রতিবাদে বিজেপি কর্মীরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করলে পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে টিয়ার গ্যাস ছোড়ে।  অভিযোগ এরপরেই পুলিশ গুলি ও চালায়। আহতদের বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল আনা হয়। আহতদের নাম যথাক্রমে সৌমেন বাউরি (ছাত্র), তাপস বাউরি ও টুলুপ্রসাদ খাঁ।