মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখনও নীরব। দলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েনের মুখ দিয়েই বাজেটের সমালোচনায় সরব হল তৃণমূল কংগ্রেস। বাজেটকে কটাক্ষ করে তৃণমূল সাংসদ বললেন, 'সেল ইন্ডিয়া' নামে নতুন প্রকল্প নিয়েছে মোদী সরকার। 

বাজেটের সমালোচনা করতে গিয়ে ডেরেক বলেন, 'সরকার এখনও স্বপ্ন দেখাচ্ছে। কিন্তু তা কার্যকর হচ্ছে না। মানুষের জন্য এখন দুঃস্বন চলছে।'

আরও পড়ুন- লিটার পিছু দু' টাকা বৃদ্ধি, একধাক্কায় পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়িয়ে দিলেন নির্মলা

ডেরেকের অভিযোগ, নতুন চাকরি অথবা কর্মসংস্থান কীভাবে হবে, বাজাটে সেই দিশা দেখাতে পারেননি অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। এবারের বাজেটে বেশি করে বিদেশি বিনিয়োগের উপরে জোর দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। সংবাদমাধ্যম, বিমা ক্ষেত্রে বিদেশি বিনিয়োগের কথা বলেছেন তিনি। এই ঘোষণাকে কটাক্ষ করে ডেরেক বলেন, সরকার নতুন 'সেল ইন্ডিয়া' নীতি নিয়েছে। তাই সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে বিমা ক্ষেত্র, সবকিছুই বিদেশি বিনিয়োগের জন্য ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। এয়ার ইন্ডিয়াকে বিক্রি করার সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করেন ডেরেক। 

রেলের আর্থিক বরাদ্দ নিয়ে অর্থমন্ত্রী বিশেষ সময় ব্যয় না করাতেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন তৃণমূল সাংসদ। তিনি বলেন, 'এই জন্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আলাদা রেল বাজেটের পক্ষে ছিলেন। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী মাত্র ২ মিনিট ১৫ সেকেন্ড রেল নিয়ে কথা বলেছেন।'

বাজেটে অর্থমন্ত্রী ঘোষণা করেন, ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ হবে। পশ্চিমবঙ্গে ইতিমধ্যেই কৃষকদের আয় তিনগুণ বেড়েছে বলে দাবি করে ডেরেকের পাল্টা কটাক্ষ, কেন্দ্রীয় সরকার যে পরিকল্পনা করেছে তাতে কৃষকের আয় দ্বিগুণ হতে ২০৪০ সাল হয়ে যাবে। 

আশ্চর্যজনক ভাবে বাজেটের পেশের পরে বেশ কয়েকঘণ্টা কেটে গেলেও সোশ্যাল মিডিয়া বা সংবাদমাধ্যমে তা নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।