১১ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে যাচ্ছে ভারতের সাত দফার লোক সভা নির্বাচন। সারা দেশ যখন দিল্লির মসনদে কারা আসতে চলেছে, তাই নিয়েই মশগুল, তখন অরুণাচল প্রদেশ,অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা, ও সিকিম - এই চার রাজ্যের মানুষের আগ্রহ কেন্দ্রের সরকারের পাশাপাশি রাজ্য়ের ভাগ্য নির্ধারণের দিকেও রয়েছে। ১১ তারিখই তিন রাজ্য়ের সব বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে। ওড়িশাতে অবশ্য দুই নির্বাচনই হচ্ছে মোট চার দফায়।

অন্ধ্রপ্রদেশে মোট ১৭৫টি বিধানসভা আসন রয়েছে। সংখ্যাগরীষ্ঠতা পেতে  জিততে হবে অন্তত ৮৮টি আসনে। গত নির্বাচনে ১০৩টি আসন পেয়ে সরকার গড়েছিল এন চন্দ্রবাবু নাইডুর টিডিপি। ৬৭টি আসন পেয়েছিল ওয়াইএসআর কংগ্রেস। এছাড়া বিজেপির হাতে ছিল ৪টি আসন। কংগ্রেস ১৭৫টি আসনেই ও জনসেনা পার্টি ১৪০টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে। এছাড়া বসপা ২১টিতে ও সিপিআইএম ও সিপিআই ৭টি করে আসনে প্রার্থী দিয়েছে।

অরুণাচল প্রদেশে গত বিধানসভা নির্বাচনে ৬০টি আসনের মধ্যে ৪২টিতে জয়ী হয়ে নবম টুকির নেতৃত্বে সরকার গড়েছিল জাতীয় কংগ্রেস। এনডিএ জোটের বিজেপি পেয়েছিল ১১টি আসন ও এনপিপি পেয়েছিল ৫টি আসন। ২০১৬ সালে দুবার দলবদলের পর এই হিসেব ওটপালট হয়ে গিয়ে বিজেপি ৩৬টি, এনপিপি ১৬টি ও কংগ্রেস ৬টি আসনে দাঁড়ায়। পেমা খান্ডুর নেতৃত্বে সরকার গড়ে বিজেপি।

ওড়িশার ৪টি লোকসভা দের পাশাপাশি ওই সব এসলাকায় ১১ এপ্রিল বিধানসভা ভোটও হবে। ১৪৭ আসনের ওড়িশা বিধানসভায় সরকার গড়তে অন্তত ৭৪ আসনে জয় চাই। ২০১৪ সালে নবীন পট্টনায়েকের বিজু  জনতা দল ১১৭টি আসনে জিতে সরকার গড়েছিল। কংগ্রেস পেয়েছিল ১৬টি আসন, বিজেপি ১০ টি।

৩২ আাসনের সিকিম বিধান সভায় সরকার ড়তে চই অন্তত ১৭টি আসন। এখানে লড়াইটা দ্বিমুখী। শাসক এনডিএ সঙ্গী সিকিম ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্ট ২০১৪ সালে ২২টি আসনে জয়ী হয়ে সরকার গড়েছিল। আর ক্রান্তিকারী মোর্চা পেয়েছিল ১০টি আসন।

রবিবার (১০ মার্চ) ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে এই চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের দিনও ঘোষণা করা হল। চার রাজ্যের মধ্যে একমাত্র ওড়িশায় ভোট লোকসভা হবে ৪ দফায়। এছাড়া অরুণাচল প্রদেশ,অন্ধ্রপ্রদেশ, ও সিকিমে একদফাতেই ভোট গ্রহণ করা হবে। সেই সঙ্গেই ই চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনও চলবে।

সেই সঙ্গে দেশের ১২টি রাজ্যে ৭৪টি বিধানসভা আসন ফাঁকা রয়েছে। এই উপনির্বাচনগুলিরও ভোটগ্রহণ করা হবে লোকসভা নির্বাচনের সময়ই। তবে গত নভেম্বর থেকে রাষ্ট্রপতি শাসনের আওতায় থাকা জম্মু ও কাশ্মীরে এখনও শুধুই লোকসভা নির্বাচন হবে। বিধানসভার দিন পরে ঘোষণা করা হবে। কমিশন জানিয়েছে, একসঙ্গে দুটি নির্বাচন করার মতো যথেষ্ট নিরাপত্তাকর্মীর অভাব রয়েছে।

লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গেই বিধানসভা নির্বাচন আয়োজন করার দাবি দীর্ঘদিন ধরে জানিয়ে আসছে বিজেপি। বিরোধীরা অবশ্য এই ব্যবস্থার বেশ কিছু সমস্যার জায়গা তুলে ধরেছিল। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত সেই দাবিই মানল কমিশন। এই চার রাজ্যের মধ্যে একমাত্র অরুণাচল প্রদেশে ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি।

লোকসভা ভোটের দিন অনুযায়ী নীচে ৪ রাজ্যের বিধানসভা ভো'টের দিন দেওয়া হল -

অরুণাচল প্রদেশ  - ১১ এপ্রিল

অন্ধ্রপ্রদেশ - ১১ এপ্রিল

সিকিম - ১১ এপ্রিল

ওড়িশা - ১১ এপ্রিল, ১৮ এপ্রিল, ২৩ এপ্রিল ও ১০ মার্চ।