পিতৃপক্ষ ২০২০  ধীরে ধীরে এর সমাপ্তির দিকে এগিয়ে চলেছে। সুতরাং যাঁরা কোনও কারণে পূর্বপুরুষদের সন্তুষ্টির জন্য তর্পণ, পিন্ডদান ও শ্রাদ্ধকর্ম করতে পারেননি বা যারা তর্পণ, পিন্ডদান এবং পিতৃ সন্তুষ্ট করার জন্য কাজ করতে চান, তারা এই পিতৃপক্ষের সময় কাজ করতে পারেন। তবে পুরান মতে যদি তারিখ বা দিন গণনা করা হয়, তবে বছরে মোট ৯৯টি এমন দিন রয়েছে যে দিনে পূর্বপুরুষদের সন্তুষ্টির জন্য কাজ করা যেতে পারে। জেনে নেওয়া যাক সেই দিনগুলি কি কি-

পূর্বপুরুষদের সন্তুষ্টির জন্য তর্পণ

কুর্ম পুরাণ অনুসারে পূর্বপুরুষদের  সন্তুষ্টির জন্য কাজ যে কোনও দিনই করা যেতে পারে। যদি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র, ব্রাহ্মণ ও শ্রাদ্ধের জিনিসপত্রের যোগার থাকে। বরাহ পুরাণ অনুসারে উপাদান এবং পবিত্র স্থান পাওয়ার পরে শ্রাদ্ধ করলে শ্রদ্ধার পূর্ণ ফল পাওয়া যায়। মহাভারতে এর অশ্বমেধিক পর্বে উল্লেখ রয়েছে যে, সময় ব্রাহ্মণ, দধি, ঘি, কুশ, ফুল এবং একটি পবিত্র স্থান যেমন গঙ্গার পাড় পূর্বপুরুষদের উদ্দেশ্যে এই কাজের জন্য উৎকৃষ্ট।

এছাড়াও প্রতি মাসে হওয়া আমাবস্যার ভিত্তিতে, সারা বছরে মোট ১২ টি অমাবস্যা হয়। এছাড়া উল্লেখযোগ্য তিথি হল কার্তিক মাসের শুক্লপক্ষের নবম দিন, বৈশাখ মাসের শুক্লপক্ষের তৃতীয়া তিথি উল্লেখযোগ্য। এই পাশাপাশি সারা বছর জুড়ে মোট ১২টি সংক্রান্তি, ১২ টি বৈধৃতি যোগ এবং ১২ টি ব্যাতিপাত যোগেও এই কাজ হয়। এছাড়া প্রতি বছর পিতৃপক্ষে বা মহালয়ার ১৫ দিন আগে থেকে পূর্বপুরুষদের উদ্দেশ্যে এই কাজ করা হয়। এর সঙ্গে ৫ টি অষ্টক, ৫ অনাবৃষ্টিকা এবং ৫ পূর্বেন্দু। বছরের এই তিথিগুলিতেই পূর্বপুরুষদের উদ্দেশ্যে তর্পণ, পিন্ডদান ও শ্রাদ্ধকর্ম করা যেতে পারে।