Asianet News BanglaAsianet News Bangla

৩০০ বছরে এই প্রথম, মিলল বিশ্বের সবচেয়ে বড় গোলাপী হীরে লুলা রোজ-এর খোঁজ

উত্তর পূর্ব অ্যাঙ্গোলায় (Angola) খননকারীরা একটি বড় আকারের দুর্লভ এবং বিশুদ্ধ গোলাপি হীরা (Pink diamond) পাওয়া গিয়েছে। বলা হচ্ছে গত ৩০০ বছরে (300 years) এ ধরনের যত হীরার টুকরো খনিতে পাওয়া গেছে তার মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড়।

The largest rare Pink diamond The Lulo Rose has been found in a mine in Angola after 300 years spb
Author
Kolkata, First Published Jul 27, 2022, 7:17 PM IST

পৃথিবীর বুকে আরও এক আশ্চর্যজনক খনিজ দ্রব্যের আবিষ্কার। বিরল গোলাপী হীরার হদিশ মিলল  মধ্য আফ্রিকার দেশ অ্যাঙ্গোলার একটি খনিতে। গোলাপী হীরা এমনিতেই খুব একটা পাওয়া যায় না। এর আগে যে কয়েকবার তা পাওয়া গিয়েছে অ্যাঙ্গোলা থেকে পাওয়া গোলাপী হীরাটি  সবথেকে বড় বলে মনে করা হচ্ছে। খননকারী সংস্থার দাবি, এটি গত ৩০০ বছরের মধ্যে পাওয়া যাওয়া সবচেয়ে বড় গোলাপি হীরা।  অ্যাঙ্গোলার হীরা সমৃদ্ধ উত্তরপূর্বাঞ্চলের লুলো খনিতে এটি পাওয়া যায়।  ১৭০ ক্যারেটের গোলাপি হীরাটির নাম রাখা হয়েছে দ্য লুলো রোজ। ইতিমধ্যেই বিশ্ব জুড়ে আলোড়ন তৈরি করেছে এই হীরা। এর বাডার দর কত উঠতে পারে তা অনুমান করেই চোখ কপালে উঠছে সকলের।

টাইপ ২এ হীরাটিকে খুঁজে পাওয়াকে ঐতিহাসিক ঘটনা হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। এটি অন্যতম বিরল এবং প্রাকৃতিক পাথরগুলোর মধ্যে অন্যতম বিশুদ্ধ। এটি পাওয়ার ঘটনাকে স্বাগত জানিয়েছে অ্যাঙ্গোলার সরকার। খনিটির মালিকানায় তাদের অংশও রয়েছে।অ্যাঙ্গোলার খনিজ সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী ডায়ামিনতিনো আজেভেদো বলেন, ‘লুলো থেকে উদ্ধার হওয়া এই রেকর্ড এবং দর্শনীয় গোলাপী হীরা বিশ্ব মঞ্চে অ্যাঙ্গোলাকে একটি গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হিসাবে প্রদর্শন করবে’। আন্তর্জাতিক দরপত্রের মাধ্যমে হীরাটি বিক্রি করা হবে। ধারণা করা হচ্ছে এটি অনেক বেশি দামে বিক্রি হতে পারে।

জানা গিয়েছে খনিজ দ্রব্য়ের সন্ধানে উত্তর পূর্ব অ্যাঙ্গোলায়  খনন কার্য চালানো হচ্ছিল। যার দায়িত্বে ছিল অস্ট্রেলিয়ার এক সংস্থা। বেশ কিছু দিন ধরেই চলছিল খনন কার্য। তখনই উদ্ধার হয় এই গোলাপী হীরাটি। প্রথমে বোঝ না গেলেও পরে উচ্চ পদস্থ আধারিকাররা বুঝতে পারেন এটি দুর্লভ গোলাপী হীরা। অতীতে এই ধরনের হীরা  কাটা এবং পালিশ করার পর রেকর্ড দামে বিক্রি হয়েছে। তবে এই হীরা কেটে ও পালিশ করার পর এর জন অনেকটাই হ্রাশ পাবে। তবে তারপরও যে দাম হবে তা ইতিহাস তৈরি করতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। হীরাটি এখন কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে রাখা হয়েছে। তার পালিশের কাজ কবে শুরু হবে তা এখনও জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত, এর আগেও এর থেকে ছোট হলেও একাধিক গোলাপী হীরা অনেক দামে বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে একটি হচ্ছে পিংক স্টার।  এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে ব্যয়বহুল গোলাপি হীরা। ৫৯ ক্যারেটের হীরাটি ২০১৭ সালে ৭ কোটি ১২ লাখ ডলার দামে বিক্রি হয়েছিল। ২০১৩ সালে আরেকটি নিলামে ৮ কোটি ৩০ লাখ ডলারে বিক্রি হয়েছিল। দামের দিক থেকে পিংক স্টারের পরে দ্বিতীয় স্থানে আছে ওপেনহাইমার ব্লু নামে আরেকটি হীরা। যা গত মে মাসে ৫ কোটি ডলারে বিক্রি হয়। এখন এই গোলাপী হীরাটি কত দামে বিক্রি হয় সেটাই দেখার।

আরও পড়ুনঃশাহবাজ শরিফকে ধাক্কা! পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্টে জয় ইমরান খানের

আরও পড়ুনঃআমেরিকার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ আর নয়, ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশন থেকে আলাদা হচ্ছে রাশিয়া

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios