টান টান উত্তেজনাপূর্ণ গ্রুপ পর্বের শেষে সেরা চারটি দল এসেছে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে। ৯ই জুলাই মঙ্গলবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে প্রথম সেমি ফাইনালে সপ্তম বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলবে ভারত। প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড।

গত ২৫ মে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে ব্ল্যাক ক্যাপসদের বিরুদ্ধে বোলিং সহায়ক পরিস্থিতিতে ভারতীয় ব্যাটিং-এর ভরাডুবি হয়েছিল। তারপর এই প্রথম দুই দল মুখোমুখি। বৃষ্টিতে বিশ্বকাপের ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড গ্রুপ পর্বের ম্যাচটি ভেস্তে গিয়েছিল। দুই দল পয়েন্ট ভাগ করতে বাধ্য হয়েছিল। এইবার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে ফের একবার মুখোমুখি বিরাট ও কেইন উইলিয়ামস-এর দল।

শ্রীলঙ্কা-কে হারানোর ফলে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে এক নম্বর জায়গাটি দখল করেছে ভারত। বিশ্বকাপে এখনও অবধি একমাত্র ইংল্য়ান্ড ছাড়া আর কোনও দল ভারতকে আটকাতে পারেনি। অন্যদিকে টুর্নামেন্টের শুরুর দিকে অপরাজিত থাকলেও শেষ লগ্নে পরপর ৩টি ম্যাচ হেরে ধাক্কা খেয়েছে নিউজিল্যান্ড। নিউজিল্যান্ডের শেষ চারে ওঠার পিছনে অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসন-এর অবদানই সবচেয়ে বড়। এছাড়া মার্টিন গাপ্টিল, রস টেলর, ট্রেন্ট বোল্ট, লকি ফার্গুসনরা নকআউটে জ্বলে উঠতে পারেন।

আরও পড়ুন - ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড - চার প্রধান তারকা সংঘাত, যা প্রভাব ফেলবেই ম্যাচের ফলাফলে

আরো পড়ুন - দুই ক্রিকেটারকে দলে চাইই চাই! সেমির আগে বিরাটকে সচিনের পরামর্শ

আরও পড়ুন - সেমিফাইনালে ভারতের সাফল্য ৫০ শতাংশ, কী হয়েছিল আগের ছটি ক্ষেত্রে

সেমিফাইনালে ভারতীয় দলে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন দেখা যেতে পারে। অতিরিক্ত বোলিং বিকল্প হাতে রাখতে দীনেশ কার্ত্তিক-এর জায়গায় রবীন্দ্র জাদেজা অথবা কেদার যাদবকে সুযোগ দেওয়ার ভাবনা রয়েছে এছাড়া ভুবনেশ্বর কুমার-এর পরিবর্তে দলে আসতে পারেন দুরন্ত ফর্মে থাকা মহম্মদ শামি।
এবং কুলদিপ যাদব বা ইয়ুজবেন্দ্র চাহেল-এর পরিবর্তে খেলবে রবিন্দ্র জাদেজা।  

অন্যদিকে চোটের জন্য গ্রিপের শেষ ম্যাচে খেলতে না পারলেও সেমিতে নিউজিল্যান্ড দলে টিম সাউথি-র পরিবর্তে তাদের বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল বোলার লকি ফার্গুসনের প্রথম দলে ফেরাটা একেবারে নিশ্চিত।

ভারতীয় দলের একমাত্র চিন্তার কারন মিডল অর্ডার ব্যাটিং। গত দুই বছর যেমন দেখা গিয়েছে, তেমনভাবেই বিশ্বকাপেও দলের হয়ে অধিকাংশ রানই করেছেন প্রথম তিন ব্যাটসম্যান - রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, এবং কে এল রাহুল (শিখরের জায়গায় দিব্বি মানিয়ে নিয়েছেন)। কিন্তু মিডল অর্ডার আসলেই ভারতের ব্য়াটিং আমূল বদলে যাচ্ছে। রানের গতি থমকে যাচ্ছে।

তবে এমন আকর্ষণীয় মোকাবিলায় বাধ সাধতে পারে বৃষ্টি। লন্ডনের হাওয়া অফিস কিন্তু মোটেই ভাল খবর দেয়নি। মঙ্গলবার ম্যাচের ম্যাঞ্চেস্টারে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যার কারণে খেলা শুরু হতে দেরি হতে পারে। পরের দিকেও তাবা মারতে পারে বৃষ্টি। তবে নকআউটের প্রতি ম্যাচেই রিজার্ভ ডে রয়েছে। বৃষ্টির সম্ভাবনা টসের গুরুত্বও বাড়িয়ে দিয়েছে। বৃষ্টি হলে ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে ফলাফল নির্ধারিত হতে পারে। তাই দুইদই টসে জিতলে আগে ব্যাটিং নিতে চাইবে।

তবে মেঘলা আবহাওয়া থাকলে বিপাকে পড়তে পারে ভারত। আকাশে মেঘ থাকলে বল নড়াচড়া করবেই সেই ক্ষেত্রে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন ট্রেন্ট বোল্ট। এই বছরই দুটি ম্যাচে তিনি দেখিয়ে দিয়েছেন পরিস্থিতির সামান্য সাহায্য পেলে তিনি কি করতে পারেন।