সমস্ত নেগেটিভ শক্তি থেকে মুক্তি, মনে রাখুন বাস্তুশাস্ত্রের ১০টি নিয়ম

First Published 18, Feb 2020, 2:00 PM IST

বাস্তুশাস্ত্র শব্দটি এসেছে বস্তু থেকে। বাস্তু বলতে সব কিছুকেই বুঝায়- তা একটি স্থান হতে পারে- কিংবা একটা বাড়িও হতে পারে। ভারত উপমহাদেশে প্রায় সভ্যতার সূচনালগ্ন থেকে স্থাপত্য নির্মাণকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। সভ্যতার শুরু থেকেই ভারতীও উপমহাদেশে শিল্পচর্চাকে ঊর্ধ্বে স্থান দেয়া হয়েছে। স্থাপত্যশৈলী উপবেদের অন্যতম বিষয়। স্থাপত্য উপবেদ বা স্থাপত্যশাস্ত্র চারটি উপবেদের অন্যতম। প্রায় ৫০০০ বছর ধরে বাস্তুবিদ্যা কালের বিরুদ্ধে নিরন্তর সংগ্রামে জয়ী হয়েছে। স্থাপত্য উপবেদ বা স্থাপত্য শাস্ত্রের সূত্রগুলো পরবর্তীকালে 'বাস্তুশাস্ত্র' শিরোনামে লিপিবদ্ধ হয়েছে। পরবর্তীতে তা বিস্তার লাভ করে। প্রাচীন যুগে স্থপতিরা কেবল নিছক তৈরির কাজ করতেন না, নির্মাণশৈলী ও পরিকল্পনার বিষয়টিও তদারক করতে হত তাঁদের। 

সারাদিনের কাজের ব্যস্ততার শেষে আমরা বাড়ি ফেরার কথা চিন্তা করি। পরিবারের সঙ্গে একই ছাদের নীচে থাকার সুখ বা আনন্দটা বাড়ির বাইরে থাকলেই অনুভব করা যায়। তাই যেন কোনও ভাবেই নেগেটিভ এ্যনার্জী থেকে আপনার বাস্তু ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

সারাদিনের কাজের ব্যস্ততার শেষে আমরা বাড়ি ফেরার কথা চিন্তা করি। পরিবারের সঙ্গে একই ছাদের নীচে থাকার সুখ বা আনন্দটা বাড়ির বাইরে থাকলেই অনুভব করা যায়। তাই যেন কোনও ভাবেই নেগেটিভ এ্যনার্জী থেকে আপনার বাস্তু ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

বাড়ির প্রধান দরজায় অবশ্যই নেমপ্লেট লাগান- বাড়ির বাইরে প্রধান দরজার নেমপ্লট লাগানোর পিছনে একটি বৈজ্ঞানীক যুক্তি আছে। নেমপ্লট, আপনার বাড়ির মালিকানার ইঙ্গিত দেয়। বাস্তু বিশেষজ্ঞরা সবসময় এই একই পরামর্শ দেন। যেন অবশ্যই, আপনার বাড়ির বাইরে প্রধান দরজার নেমপ্লট লাগানো থাকে। যার ফলে বাস্তুর পজিটিভ এ্যনার্জী বৃদ্ধি পায় যা বাস্তুর মালিকানার পক্ষে এবং আপনার বাড়ির পক্ষেও শুভ।

বাড়ির প্রধান দরজায় অবশ্যই নেমপ্লেট লাগান- বাড়ির বাইরে প্রধান দরজার নেমপ্লট লাগানোর পিছনে একটি বৈজ্ঞানীক যুক্তি আছে। নেমপ্লট, আপনার বাড়ির মালিকানার ইঙ্গিত দেয়। বাস্তু বিশেষজ্ঞরা সবসময় এই একই পরামর্শ দেন। যেন অবশ্যই, আপনার বাড়ির বাইরে প্রধান দরজার নেমপ্লট লাগানো থাকে। যার ফলে বাস্তুর পজিটিভ এ্যনার্জী বৃদ্ধি পায় যা বাস্তুর মালিকানার পক্ষে এবং আপনার বাড়ির পক্ষেও শুভ।

রান্নাঘরের স্থান – সব সময় রান্নাঘর আপনার বাড়ির দক্ষিন-পূর্ব দিকে রাখবেন। যদি তা কোনও ভাবে সম্ভব না হয় তাহলে উত্তর-পশ্চিম দিক হল রান্নাঘরের জন্য দ্বিতীয় সেরা বিকল্প।

রান্নাঘরের স্থান – সব সময় রান্নাঘর আপনার বাড়ির দক্ষিন-পূর্ব দিকে রাখবেন। যদি তা কোনও ভাবে সম্ভব না হয় তাহলে উত্তর-পশ্চিম দিক হল রান্নাঘরের জন্য দ্বিতীয় সেরা বিকল্প।

লেবু বাস্তুর নেগেটিভ এ্যনার্জী দূর করে – বাস্তু থেকে নেগেটিভ এ্যনার্জী দূর করতে, প্রত্যেক শনিবার পাতিলেবু কেটে এক গ্লাস জলে রেখে দিন। এই ভাবে প্রত্যেক সপ্তাহের শনিবার গ্লাসের জল ও লেবু পালটে দিয়ে বাড়িতে রেখে দিন।

লেবু বাস্তুর নেগেটিভ এ্যনার্জী দূর করে – বাস্তু থেকে নেগেটিভ এ্যনার্জী দূর করতে, প্রত্যেক শনিবার পাতিলেবু কেটে এক গ্লাস জলে রেখে দিন। এই ভাবে প্রত্যেক সপ্তাহের শনিবার গ্লাসের জল ও লেবু পালটে দিয়ে বাড়িতে রেখে দিন।

রান্নাঘরে কখনই ওষুধ রাখবেন না- রান্নাঘরকে নেগেটিভ এ্যনার্জী বা কুনজর থেকে সুরক্ষিত রাখুন। রা‌ন্নাঘরে কথনও কোনও ওষুধ রাখবেন না। কারণ রান্নাঘরই আপনার সুস্বাস্থ্য এবং সুখের ঈঙ্গিত দেয়, কিন্তু ওষুধ তার ঈঙ্গিত দেয় না।

রান্নাঘরে কখনই ওষুধ রাখবেন না- রান্নাঘরকে নেগেটিভ এ্যনার্জী বা কুনজর থেকে সুরক্ষিত রাখুন। রা‌ন্নাঘরে কথনও কোনও ওষুধ রাখবেন না। কারণ রান্নাঘরই আপনার সুস্বাস্থ্য এবং সুখের ঈঙ্গিত দেয়, কিন্তু ওষুধ তার ঈঙ্গিত দেয় না।

বেডরুমে আয়নার স্থান – আপনার বেডরুমে কখনোই কোনও আয়না রাখবেন না। যদি আপনার বেডরুমে আগে থেকেই কোনও ফার্ণিচারে আয়না থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই শুতে যাওয়ার আগে তাতে পর্দা দিয়ে ঢেকে দিন। বাস্তুশাস্ত্র মতে, বেডরুমে আয়না থাকা আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর এবং আপনার পারিবারিক অশান্তির কারণও হয়ে দাঁড়াতে পারে।

বেডরুমে আয়নার স্থান – আপনার বেডরুমে কখনোই কোনও আয়না রাখবেন না। যদি আপনার বেডরুমে আগে থেকেই কোনও ফার্ণিচারে আয়না থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই শুতে যাওয়ার আগে তাতে পর্দা দিয়ে ঢেকে দিন। বাস্তুশাস্ত্র মতে, বেডরুমে আয়না থাকা আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর এবং আপনার পারিবারিক অশান্তির কারণও হয়ে দাঁড়াতে পারে।

ঘরে অবশ্যই গঙ্গাজল রাখুন- বাড়ির অন্ধকার স্থান বা অব্যহৃত কোন স্থানে গঙ্গাজল অবশ্যই রাখুন। এবং প্রত্যেক সপ্তাহে সেটি পরিবর্তন করুন। গঙ্গাজল বাড়িতে থাকলে বাস্তুর পজেটিভ এ্যনার্জী বর্তমান থাকে।

ঘরে অবশ্যই গঙ্গাজল রাখুন- বাড়ির অন্ধকার স্থান বা অব্যহৃত কোন স্থানে গঙ্গাজল অবশ্যই রাখুন। এবং প্রত্যেক সপ্তাহে সেটি পরিবর্তন করুন। গঙ্গাজল বাড়িতে থাকলে বাস্তুর পজেটিভ এ্যনার্জী বর্তমান থাকে।

স্বস্তিক চিহ্ন রাখুন বাড়িতে – স্বস্তিক হল সম্পদ এবং সমৃদ্ধিত চিহ্ন। বাড়ির বাইরের দিকে মেইন দরজার, এই স্বস্তিক চিহ্ন বা ওম এঁকে দিন।

স্বস্তিক চিহ্ন রাখুন বাড়িতে – স্বস্তিক হল সম্পদ এবং সমৃদ্ধিত চিহ্ন। বাড়ির বাইরের দিকে মেইন দরজার, এই স্বস্তিক চিহ্ন বা ওম এঁকে দিন।

লবন নেগেটিভ এ্যনার্জী দূর করে- আপনার বাস্তুর জন্য ক্ষতিকারক নেগেটিভ শক্তির প্রভাব প্রশমিত করতে লবনের তুলনা হয় না। ঘরের যে কোনও কোনায় ছোট লবন ভর্তি পাত্র রাখুন। এই লবন ভর্তি পাত্র ক্ষতিকারক শক্তির হাত থেকে আপনার বাস্তুকে রক্ষা করবে।

লবন নেগেটিভ এ্যনার্জী দূর করে- আপনার বাস্তুর জন্য ক্ষতিকারক নেগেটিভ শক্তির প্রভাব প্রশমিত করতে লবনের তুলনা হয় না। ঘরের যে কোনও কোনায় ছোট লবন ভর্তি পাত্র রাখুন। এই লবন ভর্তি পাত্র ক্ষতিকারক শক্তির হাত থেকে আপনার বাস্তুকে রক্ষা করবে।

আলো বা প্রদীপ- নিয়মিত সকালে এবং সন্ধ্যাবেলা বাড়িতে প্রদীপ বা ধূপ দেওয়ার পরামর্শ দেন বাস্তু বিশেষজ্ঞরা। এতে করে আপনার গৃহস্থের বাস্তু শুদ্ধ থাকে এবং নেগেটিভ শক্তি বা কুনজরের হাত থেকেও বাস্তু সুরক্ষিত থাকে।

আলো বা প্রদীপ- নিয়মিত সকালে এবং সন্ধ্যাবেলা বাড়িতে প্রদীপ বা ধূপ দেওয়ার পরামর্শ দেন বাস্তু বিশেষজ্ঞরা। এতে করে আপনার গৃহস্থের বাস্তু শুদ্ধ থাকে এবং নেগেটিভ শক্তি বা কুনজরের হাত থেকেও বাস্তু সুরক্ষিত থাকে।

loader