১৬ মার্চ মানেই সচিনের ১০০ তম শতরানের দিন, দেখে নিন মাস্টারব্লাস্টারের কিছু চিরস্মরণীয় মুহূর্ত

First Published 16, Mar 2020, 4:03 PM IST

সচিন তেন্ডুলকর মানেই ক্রিকেটের এক উন্মাদনা। সকলে তাঁকে মাস্টার ব্লাস্টার বলেই ডাকেনয তবে, কেউ কেউ তাঁর শারীরিক উচ্চতার জন্য জুনিয়র লিটল মাস্টার বলেও গণ্য করেন। তিনি তাঁর ক্রিকেট জীবনে অসংখ্য রেকর্ড তৈরি করেছেন। ক্রিকেটের ইতিহাসে তিনি এখন এমন একটা জায়গায় বিচরণ করেন যেখানে তাঁকে ক্রিকেটের ভগবান বলে উল্লেখ করা হয়। ১৫ মার্চ তারিখে ক্রিকেট কেরিয়ারে ১০০ তম শতরানের রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি। এখানে রইল সচিনের সম্পর্কে ১১টি তথ্য। 
 

শততম আন্তর্জাতিক শতরান-- আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সচিন তেন্ডুলকর একমাত্র ক্রিকেটার যাঁর ঝুলিতে টেস্ট ও ওয়ান ডে মিলিয়ে একশোটি শতরান রয়েছে। ২০১২ সালের ১৬ মার্চ মীরপুরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এশিয়া কাপের ম্যাচে শততম সেঞ্চুরিটি করেন লিটল মাস্টার।

শততম আন্তর্জাতিক শতরান-- আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সচিন তেন্ডুলকর একমাত্র ক্রিকেটার যাঁর ঝুলিতে টেস্ট ও ওয়ান ডে মিলিয়ে একশোটি শতরান রয়েছে। ২০১২ সালের ১৬ মার্চ মীরপুরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এশিয়া কাপের ম্যাচে শততম সেঞ্চুরিটি করেন লিটল মাস্টার।

কেমন ছিল সেই ইনিংস-- ম্যাচের ৪৪ তম ওভারে শততম শতরানটি করেছিলেন সচিন তেন্ডুলকর। ১১৪ রানের সেই ঐতিহাসিক ইনিংসে ১২টি চার ও একটি ৬ মেরছিলেন তিনি।  বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সেই ম্যাচের ইনিংস আজও ইউটিউবে ভাইরাল।

কেমন ছিল সেই ইনিংস-- ম্যাচের ৪৪ তম ওভারে শততম শতরানটি করেছিলেন সচিন তেন্ডুলকর। ১১৪ রানের সেই ঐতিহাসিক ইনিংসে ১২টি চার ও একটি ৬ মেরছিলেন তিনি। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সেই ম্যাচের ইনিংস আজও ইউটিউবে ভাইরাল।

আরচেকর স্যারকে স্মরণ-- যার দৌলতে বদলে গিয়েছিল সচিনের গোটা জীবন, যে কোনও রেকর্ডের পরই যাকে স্মরণ করতেন সচিন, শততম সেঞ্চুরির পরও ছেলেবেলার কোচ রমাকান্ত আরচেকর স্যারকে স্মরণ করেন তিনি। পেস বোলার হিসেবে ছোটবেলায় শুরু করলেও আরচেকর স্যারের কথাতেই ব্যাট হাতে তুলে নিয়েছিলেন লিটল মাস্টার। স্যারের মৃত্যুর পর সচিনের সেই আবেগঘন মুহূর্তের ছবি আজও স্মরণে সকলের।

আরচেকর স্যারকে স্মরণ-- যার দৌলতে বদলে গিয়েছিল সচিনের গোটা জীবন, যে কোনও রেকর্ডের পরই যাকে স্মরণ করতেন সচিন, শততম সেঞ্চুরির পরও ছেলেবেলার কোচ রমাকান্ত আরচেকর স্যারকে স্মরণ করেন তিনি। পেস বোলার হিসেবে ছোটবেলায় শুরু করলেও আরচেকর স্যারের কথাতেই ব্যাট হাতে তুলে নিয়েছিলেন লিটল মাস্টার। স্যারের মৃত্যুর পর সচিনের সেই আবেগঘন মুহূর্তের ছবি আজও স্মরণে সকলের।

দর্শকদের উল্লাস-- দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে অপেক্ষার অবসান ঘটেছিল ১৩০ কোটি ভারতীয়। সচিনের ফ্যানেরা উৎসবে মেতেছিলেন দেশ জুড়ে। বিশ্বে জুড়ে  অনুরাগীদের শুভেচ্ছার বন্যায় ভেসেছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার।

দর্শকদের উল্লাস-- দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে অপেক্ষার অবসান ঘটেছিল ১৩০ কোটি ভারতীয়। সচিনের ফ্যানেরা উৎসবে মেতেছিলেন দেশ জুড়ে। বিশ্বে জুড়ে অনুরাগীদের শুভেচ্ছার বন্যায় ভেসেছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার।

সুধীরের উল্লাস- সচিন ভক্তদের মধ্যে যাকে এক নামে সবাই চেনেন তার নাম সুধীরকুমার চৌধুরী। ভারতের প্রতি ম্যাচে মাঠে উপস্থিত থাকেন তিনি।  শরীর ভারতীয় পতাকার রঙে রাঙিয়ে তাতে সচিনের নাম লিখে পুরো মাঠ জুড়ে গলা ফাঁটানো। এককথায় সুধীরের সংজ্ঞা এটাই। ভক্তের ভগবানের শততম সেঞ্চুরির পর উল্লাসে মাতেন সুধীরও। সচিনের সঙ্গে দেখাও করেন সচিন ভক্ত।

সুধীরের উল্লাস- সচিন ভক্তদের মধ্যে যাকে এক নামে সবাই চেনেন তার নাম সুধীরকুমার চৌধুরী। ভারতের প্রতি ম্যাচে মাঠে উপস্থিত থাকেন তিনি। শরীর ভারতীয় পতাকার রঙে রাঙিয়ে তাতে সচিনের নাম লিখে পুরো মাঠ জুড়ে গলা ফাঁটানো। এককথায় সুধীরের সংজ্ঞা এটাই। ভক্তের ভগবানের শততম সেঞ্চুরির পর উল্লাসে মাতেন সুধীরও। সচিনের সঙ্গে দেখাও করেন সচিন ভক্ত।

সচিনের টেস্ট কেরিয়ার-- ৮৯ সালে আবিভার্বে জাত চিনিয়েছিলেন সচিন। তার ব্য়াট বার্তা দিয়েছিল বিশ্ব ক্রিকেটে রাজ করতে এসেছেন তিনি। তারপর বাকিটা ইতিহাস। টেস্ট ক্রিকেটে ২০০টি ম্যাচ খেলেছেন নজির। যা রেকর্ড । ২০০টি ম্যাচে ৫১ সেঞ্চুরি ও ৬৮টি হাফ সেঞ্চুরির সৌজন্যে ১৫ হাজার ৯২১ রাবনের মালিক সচিন। ৫১টি টেস্ট সেঞ্চুরি যা টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে এখনও সর্বাধিক।

সচিনের টেস্ট কেরিয়ার-- ৮৯ সালে আবিভার্বে জাত চিনিয়েছিলেন সচিন। তার ব্য়াট বার্তা দিয়েছিল বিশ্ব ক্রিকেটে রাজ করতে এসেছেন তিনি। তারপর বাকিটা ইতিহাস। টেস্ট ক্রিকেটে ২০০টি ম্যাচ খেলেছেন নজির। যা রেকর্ড । ২০০টি ম্যাচে ৫১ সেঞ্চুরি ও ৬৮টি হাফ সেঞ্চুরির সৌজন্যে ১৫ হাজার ৯২১ রাবনের মালিক সচিন। ৫১টি টেস্ট সেঞ্চুরি যা টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে এখনও সর্বাধিক।

সচিনের ওয়ান ডে কেরিয়ার-- ওয়ান ডে ক্রিকেটে সচিনের ব্যাট কথা বলেছে আরও বেশি। ৪৬৩টি ম্যাচে ১৮ হাজার  ৪২৬ রান করেছেন মাস্টার ব্লাস্টার। তাতে রয়েছে ৪৯টি সেঞ্চুরি ও ৯৬টি সেঞ্চুরি রয়েছে সচিনের। ৪৯টি সেঞ্চুরিও একদিনের ক্রিকেটে সর্বাধিক।

সচিনের ওয়ান ডে কেরিয়ার-- ওয়ান ডে ক্রিকেটে সচিনের ব্যাট কথা বলেছে আরও বেশি। ৪৬৩টি ম্যাচে ১৮ হাজার ৪২৬ রান করেছেন মাস্টার ব্লাস্টার। তাতে রয়েছে ৪৯টি সেঞ্চুরি ও ৯৬টি সেঞ্চুরি রয়েছে সচিনের। ৪৯টি সেঞ্চুরিও একদিনের ক্রিকেটে সর্বাধিক।

শেষ একদিনের ম্যাচ-- ১৮ মার্চ ২০১২ সালে নিজের কেরিয়ারের শেষ একদিনের ম্যাচ খেলেছিলেন সচিন তেণ্ডুলকর। বাংলাদেশে এশিয়া কাপের ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শেষ একদিনের ম্যাচে ৫২ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেছিলেন সচিন।

শেষ একদিনের ম্যাচ-- ১৮ মার্চ ২০১২ সালে নিজের কেরিয়ারের শেষ একদিনের ম্যাচ খেলেছিলেন সচিন তেণ্ডুলকর। বাংলাদেশে এশিয়া কাপের ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শেষ একদিনের ম্যাচে ৫২ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেছিলেন সচিন।

সচিনের অবসর-- ২০১৩ সালের নভেন্বর মাসে ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়েতে জীবনের শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেন সচিন তেন্ডুলকর। প্রতিপক্ষ ওয়েস্টইন্ডিজ। ম্যাচে ৭৪ রানের ঝকঝকে ইনিংস দেখে মনে হয়েছিল এখনও দিব্যি খেলা চালিয়ে যেতে পারেন সচিন। ম্যাচ শেষে সচিনের শেষ স্পিচ সেদিন চোখে জল এনেছিল আট থেকে আশির।

সচিনের অবসর-- ২০১৩ সালের নভেন্বর মাসে ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়েতে জীবনের শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেন সচিন তেন্ডুলকর। প্রতিপক্ষ ওয়েস্টইন্ডিজ। ম্যাচে ৭৪ রানের ঝকঝকে ইনিংস দেখে মনে হয়েছিল এখনও দিব্যি খেলা চালিয়ে যেতে পারেন সচিন। ম্যাচ শেষে সচিনের শেষ স্পিচ সেদিন চোখে জল এনেছিল আট থেকে আশির।

অবসরের পর ক্রিকেট-- অবসরের পর ব্যাট হাতে ২২ গজে মাস্টার ব্লাস্টারকে খুব একটা দেখা যায়নি। কিন্তু  শোনা প্রতিদিন বেশ কয়েক ঘণ্টা অনুশীলন চালিয়ে যান সচিন। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ায় এক প্রদর্শনী ম্যাচে ব্যাট হাতে দেখা যায় সচিনকে। সেখানে অজি মহিলা দলের সদস্য এলিস পেরির  আমন্ত্রণে কয়েকটি বল ব্যাট করেন সচিন। কিন্তু এত বছর পরও সচিনের ব্যাটের টাচ দেখে মুগ্ধ হয়েছিল ক্রিকেট বিশ্ব। এখনও ভাইরাল সচিনের সেই সংক্ষিপ্ত ইনিংস।

অবসরের পর ক্রিকেট-- অবসরের পর ব্যাট হাতে ২২ গজে মাস্টার ব্লাস্টারকে খুব একটা দেখা যায়নি। কিন্তু শোনা প্রতিদিন বেশ কয়েক ঘণ্টা অনুশীলন চালিয়ে যান সচিন। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ায় এক প্রদর্শনী ম্যাচে ব্যাট হাতে দেখা যায় সচিনকে। সেখানে অজি মহিলা দলের সদস্য এলিস পেরির আমন্ত্রণে কয়েকটি বল ব্যাট করেন সচিন। কিন্তু এত বছর পরও সচিনের ব্যাটের টাচ দেখে মুগ্ধ হয়েছিল ক্রিকেট বিশ্ব। এখনও ভাইরাল সচিনের সেই সংক্ষিপ্ত ইনিংস।

রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ ২০২০-- এছাড়া চলতি মাসেই ওয়ার্ল্ড রোড সেফিটি সিরিজে অংশ নেন সচিন। প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজ লেজেন্ডের বিরুদ্ধে  ২৯ বলে ৩৬ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন সচিন তেণ্ডুলকর। ৭টি চারে সাজানো ছিল লিটিল মাস্টারের ইনিংস।

রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ ২০২০-- এছাড়া চলতি মাসেই ওয়ার্ল্ড রোড সেফিটি সিরিজে অংশ নেন সচিন। প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজ লেজেন্ডের বিরুদ্ধে ২৯ বলে ৩৬ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন সচিন তেণ্ডুলকর। ৭টি চারে সাজানো ছিল লিটিল মাস্টারের ইনিংস।

ব্যাট হাতে ২২ গজে মাস্টার ব্লাস্টারকে দেখতে এখনও অপেক্ষায় থাকেন তার ভক্তরা। যেটুকু সুযোগ পাওয়া যায় তাই লুটে পুটে নেন সকলে। শততম শতরানের দিনে সচিন তেণ্ডুলকরের আগামী জীবনের জন্য শুভেচ্ছা রইল এশিয়া নেট নিউজ বাংলার পক্ষ থেকে।

ব্যাট হাতে ২২ গজে মাস্টার ব্লাস্টারকে দেখতে এখনও অপেক্ষায় থাকেন তার ভক্তরা। যেটুকু সুযোগ পাওয়া যায় তাই লুটে পুটে নেন সকলে। শততম শতরানের দিনে সচিন তেণ্ডুলকরের আগামী জীবনের জন্য শুভেচ্ছা রইল এশিয়া নেট নিউজ বাংলার পক্ষ থেকে।

loader