এমএইচ-৬০ সি-হক রোমেও হেলিকপ্টারে আরও শক্তিশালী হবে ভারত, দেখুন এর ১০ বৈশিষ্ট্য

First Published 25, Feb 2020, 4:29 PM IST

মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভারত সফর-এর আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল যে ভারতের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিরক্ষা চুক্তি করতে চলেছে আমেরিকা। এরমধ্যেসবচেয়ে বেশি আলোচনা চলেছে দুইটি জিনিসে। আর এটি হল আমেরিকা-র দুই অত্যাধুনিক হেলিকপ্টার। যা অত্যাধুনিক সমরাস্ত্রে সজ্জিত এবং যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে সক্ষম। এই দুই হেলিকপ্টারের একটি হল এমএইচ-৬০ সি-হক রোমেও হেলিকপ্টার। এই হেলিকপ্টার নিয়ে এখানে রইল ১০টি পয়েন্ট যা বলে দেবে কেন সামরিক বাহিনী-তে এই ধরনের হেলিকপ্টারের প্রয়োজন। 

ভারতীয় নৌবাহিনীর দীর্ঘ দিনের দাবি পুরণ হতে চলেছে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভারত সফরেই চুত্তি হয়ে গেল। এবার অপেক্ষা এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টার হাতে পাওয়ার।

ভারতীয় নৌবাহিনীর দীর্ঘ দিনের দাবি পুরণ হতে চলেছে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভারত সফরেই চুত্তি হয়ে গেল। এবার অপেক্ষা এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টার হাতে পাওয়ার।

ভারতীয় উপকূলবর্তী এলাকায় নিরাপত্তার জন্য এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টার অপরিহার্য হয়ে উঠবে আগামী দিনে। এই হেলিকর্টার বহনকরা খুবই সহজ।

ভারতীয় উপকূলবর্তী এলাকায় নিরাপত্তার জন্য এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টার অপরিহার্য হয়ে উঠবে আগামী দিনে। এই হেলিকর্টার বহনকরা খুবই সহজ।

প্রতিপক্ষের যুদ্ধ জাহাজ অথবা সাবমেরিন লক্ষ্য করে এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টার মিসাইল, টর্পেডো হামলা চালাতে পারবে। এএম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টারে রয়েছে অত্যাধুনিক সেনসর।

প্রতিপক্ষের যুদ্ধ জাহাজ অথবা সাবমেরিন লক্ষ্য করে এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টার মিসাইল, টর্পেডো হামলা চালাতে পারবে। এএম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টারে রয়েছে অত্যাধুনিক সেনসর।

এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টারকে সাবমেরিনের ক্যাপ্টেনও ভয় পায়। কারণ অতল গহ্বরে থাকা সাবমেরিন লক্ষ্য করে নিশানা করতে পারে এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টার।

এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টারকে সাবমেরিনের ক্যাপ্টেনও ভয় পায়। কারণ অতল গহ্বরে থাকা সাবমেরিন লক্ষ্য করে নিশানা করতে পারে এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টার।

এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টার হালফায়ার ক্ষেপণাস্ত্র, এমকে ৫৪ টর্পেডো বহন করতে পারে। অ্যান্টি সারফেস মিশনের জন্য এই হেলিকপ্টার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ৭.৬ এমএম মেশিনগানও ব্যবহার করা যায়।

এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টার হালফায়ার ক্ষেপণাস্ত্র, এমকে ৫৪ টর্পেডো বহন করতে পারে। অ্যান্টি সারফেস মিশনের জন্য এই হেলিকপ্টার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ৭.৬ এমএম মেশিনগানও ব্যবহার করা যায়।

এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টারের গতি অত্যন্ত তীব্র উড়ানে সময় লাগে সেকেন্ডে ৮.৩৪ মিটার। ঘণ্টায় গতি ২৬৭ কিলোমিটার। ১০,৬৫৯ কিলোগ্রাম ওজন বহন করতে সক্ষম।

এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টারের গতি অত্যন্ত তীব্র উড়ানে সময় লাগে সেকেন্ডে ৮.৩৪ মিটার। ঘণ্টায় গতি ২৬৭ কিলোমিটার। ১০,৬৫৯ কিলোগ্রাম ওজন বহন করতে সক্ষম।

একটি এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টারের দাম ২৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

একটি এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টারের দাম ২৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

ভারত প্রাথমিক পর্যায়ে ২৪ কপ্টার কেনার বিষয়ে আগ্রহী। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ২৪টি হেলিকপ্টারের দাম ২.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

ভারত প্রাথমিক পর্যায়ে ২৪ কপ্টার কেনার বিষয়ে আগ্রহী। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ২৪টি হেলিকপ্টারের দাম ২.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বর্তমানে মার্কিন নৌবাহিনীর সঙ্গে সর্বদা মোতায়েন থাকে এম-এইচ ৬০ রোমেও  হেলিকপ্টার।

বর্তমানে মার্কিন নৌবাহিনীর সঙ্গে সর্বদা মোতায়েন থাকে এম-এইচ ৬০ রোমেও হেলিকপ্টার।

সিকোরস্কাই প্রযুক্তির এই কপ্টার। নির্মাণকারী সংস্থা লকহিড  মার্টিন সংস্থা। মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যবহারের হেলিকপ্টার তৈরি করে এই সংস্থা।

সিকোরস্কাই প্রযুক্তির এই কপ্টার। নির্মাণকারী সংস্থা লকহিড মার্টিন সংস্থা। মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যবহারের হেলিকপ্টার তৈরি করে এই সংস্থা।

loader