15

এবছরের দুর্গা পুজোয় থাবা বসিয়েছে করোনাভাইরাস। তবুও পুজোর প্রস্তুতি খামতি রাখছে পুরুলিয়া শহরের কেতিকা ষোলআনা দুর্গাপুজো কমিটির। এবছর ১৩৩ বছরে পা দিচ্ছে এই সাবেকি পুজো। করোনা বিধি মেনেই এবছর পুজো হবে বলে জানালেন পুজো উদ্যোক্তারা।

Subscribe to get breaking news alerts

25

পুরুলিয়া শহরের কেতিকা ষোলআনা দুর্গাপুজো কমিটির সম্পাদক সুপ্রিয় দত্ত জানান, শতবর্ষ প্রাচীন এই দুর্গা পুজোয় এলাকার মানুষের আবেগ কাজ করে। জোরসকদমে চলছে মূর্তি গড়ার কাজ। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই মূর্তি গড়ছেন মৃত শিল্পীরা।

35

প্রাচীন রীতি মেনেই পুজো করে কেতিকা ষোলআনা দুর্গাপুজো কমিটি। নবপত্রিকার স্নান থেকে শুরু করে সন্ধী পুজো সবই মেনে চলা হয়েছে। তবে, গত বছরের তুলনায় এবছর পুজোর বাজেট অনেকটাই কাটছাঁট করা হয়েছে।

45

করোনার থাবা থাকলেও নিয়ম মেনেই এবছর সিঁদুর খেলার আয়োজন করা হয়েছে। এবছর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করবেন এলাকার শিল্পীরাই। জেলায় যতগুলি সাবেকি পুজো হয় সেগুলির মধ্য়ে কেতিকা ষোলআনা দুর্গাপুজো অন্যতম।

55


করোনা বিধি মানতে মন্দির চত্বরে থাকবে স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা। দর্শনার্থীরা সেটি ব্যবহার করে দুর্গা প্রতিমা দর্শন করতে পারবেন। খুব শীঘ্রই মূর্তি গড়ার কাজ শেষ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন পুজো উদ্যোক্তারা।