Asianet News BanglaAsianet News Bangla

কাঁদাও যাবে না জড়িয়ে ধরে, প্রিয়জন যদি কোভিড-১৯'এর শিকার হয়, কী করবেন

করানো যাবে না স্নান

চলবে না চুম্বন বা জড়িয়ে ধরে কান্না

প্রিয়জন যদি করোনার বলি হয়, কী করবেন

নির্দেশিকা জারি করল সরকার

Indian government issues guidelines for handling Covid-19 corpses
Author
Kolkata, First Published Mar 19, 2020, 4:25 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে যদি প্রিয়জনের মৃত্যু হয়, তাহলে মনের মতো করে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করার সুযোগ-ও পাওয়া যাবে না। যদিও মৃতদেহ থেকে সংক্রামিত হওয়ার ঝুঁকি প্রায় নেই বলেই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার-এর স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রক। কিন্তু, তারপরেও করোনাভাইরাস-এর প্রকোপে মৃত ব্যক্তিদের দেহ আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে সরানো বা সৎকারের ক্ষেত্রে কিছু কিছু সতর্কতা মেনে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মৃতদেহ সৎকারে যেসব স্বাস্থ্যকর্মী ও পরিবারবর্গ জড়িত থাকবেন, তাদের সবাইকে বারবার সাবান দিয়ে হাত ধুতে, মুখোশ এবং গ্লাভস ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বলা হয়েছে স্বজনদের শেষবারের মতো দেহটি দেখতে চাইলে বডিব্যাগ-এর যেই প্রান্তে মুখ রয়েছে, সেই প্রান্তের চেন খুলে দেখতে হবে। ধর্মগ্রন্থপাঠ বা পবিত্র জল ছিটানোর মতো যে যে শেষকৃত্যের ধর্মীয় আচারে দেহ স্পর্শ করতে হয় না সেগুলি করা যেতে পারে। কিন্তু, দেহকে স্নান করানো, তাকে চুম্বন করা বা আলিঙ্গন করার মতো কাজ করার অনুমতি দেওয়া হবে না।

মৃতদেহ পোড়ানো হলে যে ছাই তৈরি হয়, সেই ছাই থেকে কোনওভাবেই সংক্রমণ ছড়ানোর ঝুঁকি থাকবে না। কাজেই শেষকৃত্য সম্পন্নের পর সেই ছাই যদি কেউ সংগ্রহ করতে চান, তার অনুমতি দেওয়া হবে। তবে শ্মশানে হোক বা সমাধিস্থলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার অংশ হিসাবে বেশি লোক সমাগম হতে দেওয়া যাববে না। করোনা হানায় মৃত ব্যক্তির ঘনিষ্ঠ আত্মিয়দের মধ্যেও এই ভাইরাস সংক্রমিত হয়ে থাকতে পারে। তাই শেষকৃত্বে বেশি লোক থাকলে একসঙ্গে অনেকের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

শুধু মৃতদেহ সৎকারই নয়, হাসপাতালের বিচ্ছিন্নতা ওয়ার্ড থেকে দেহ কীভাবে বাইরে নিয়ে যাওয়া হবে সেই নিয়েও স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। বলা হয়েছে মৃতদেহের কাছে উপস্থিত সকল স্বাস্থ্যকর্মীদের হাত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধুতে হবে। পিপিই-র যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। মৃতদেহ থেকে ইন্টারভেনাস ক্যাথিটার, অথবা মুখে বা নাকে লাগানো অরফিস-এর মতো তীক্ষ্ণ জিনিসগুলি বের করার সময় বাড়তি সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে, যাতে শরীর থেকে কোনও তরল বেরিয়ে না যায়। সেইসঙ্গে ওই ব্যক্তির সমস্ত মেডিকেল ও বায়োমেডিকাল বর্জ্য নিয়ম মেনে ডিসপোজ অফ করতে হবে।

মৃতদেহটি বিচ্ছিন্নতা ওয়ার্ড থেকে বের করে একটি লিক-প্রুফ প্লাস্টিকের বডি ব্যাগে রাখতে হবে। বডি ব্যাগের বাইরের অংশ ১ শতাংশ হাইপোক্লোরাইট দিয়ে জীবানুমুক্ত করতে হবে। তার উপর পরিবারের সদস্যরা কোনও বেডশিট বা চাদর দিয়ে মুড়ে দিতে পারেন। দেহ বডিব্যাগে ভরে দেওয়ার পর পরিবেশ, সেখানকার বিভিন্ন পৃষ্ঠতল, দরজার হাতল, ব্যবহৃত যন্ত্রাদি এবং ট্রান্সপোর্ট ট্রলিকে ১ শতাংশ হাইপোক্লোরাইট দ্রবণ দিয়ে জীবাণুমুক্ত করতে হবে।

এই, নির্দেশিকাতে অবশ্য এও বলা হয়েছে যে, একটি নতুন রোগ হ'ল সন্দেহভাজন ব্যক্তির মৃতদেহ কীভাবে নিষ্পত্তি করা যায় বা কোভিড -১৯-এর একটি নিশ্চিত কেস কীভাবে তা জানার জ্ঞানের ফাঁক রয়েছে। এই নির্দেশিকাটি রোগ সম্পর্কে বর্তমান মহামারী সংক্রান্ত জ্ঞানের উপর ভিত্তি করে তৈরি।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios