এতদিন পর্যন্ত নির্বাচনের জেরে প্রকৃতির তাপে খুব একটা পার্থক্য অনুভব হয়নি। কিন্তু নির্বাচন শেষ হতেই গ্রীষ্মের প্রবল দাবদাহে রীতিমতো নাকাল হতে হচ্ছে উত্তর ভারতের একাধিক রাজ্যের বাসিন্দাকে। আর তার জেরেই রাজধানী-সহ একাধিক রাজ্যে জারি করা হয়েছে 'রেড অ্যালার্ট'। 

সূত্রের খবর, শুক্রবার পূর্ব দিল্লির স্পোর্টস কমপ্লেক্স কমনওয়েলথ গেমস ভিলেজ-এর তাপমাত্রা ছিল ৪৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা ছিল স্বাবাবিকের থেকে ৬ ডিগ্রি বেশি। যা ছিল সেদিনের রেকর্ড তাপমাত্রা। ইতিমধ্যেই সেখানে জারি করা হয়েছে 'রেড অ্যালার্ট'। এমনকী, শনিবার পর্যন্ত দিল্লি ও তার সংলগ্ন অঞ্চলে তীব্র তাপপ্রবাহ জারি থাকবে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া দফতর।  

ধেয়ে আসছে বৃষ্টি, কতক্ষণে হাসবে কলকাতা

ভারতের আবহাওয়া দফতর সূত্রে আবহাওয়ার পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করার জন্য চারটি রঙের কোড স্কেল ব্যবহার করা হয়েছে। সবুজ, হলুদ, বাদামী ও লাল। এর মধ্যে দিল্লি ছাড়া যে যেসব জায়গায় লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে, সেগুলি হল,- পঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, উত্তরপ্রদেশের পূর্ব ও পশ্চিমাংশ এবং রাজস্থানের বেশকিছু অংশ। তবে তাপমাত্রার সর্বোচ্চ মান এখনই এর থেকে না বাড়লেও, এখনও বেশকিছুদিন ধরে জারি থাকবে এই তাপপ্রবাহ। এখনও পর্যন্ত আবহাওয়া সূত্রে বৃষ্টির কোনও পূর্বাভাস দেওয়া হয়নি। তবে কেবলমাত্র পশ্চিমী ঝঞ্ধা দেখা দিলে তবে হিমাচল প্রদেশে তাপমাত্রা কিছুটা হলেও কমতে পারে। এখনও পর্যন্ত উত্তরপ্রদেশের বান্দার তাপমাত্রা রেকর্ড ছুঁয়েছে। সেখানকার তাপমাত্রা ছিল  ৪৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি বেশি। 

এই ক'দিন তাপপ্রবাহ চলাকালীন সাধারণ মানুষকে যতটা সম্ভব বাড়িতেই থাকার নির্দেশ দিয়েছেন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা। যতদিন না আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটছে ততদিন বাইরের কাজ এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন তাঁরা। প্রবল দাবদাহে হিট স্ট্রোকের মতো সমস্যাকে এড়িয়ে চলতে যতটা সম্ভব সাবধানতা অবলম্বন করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।