ভারত ও চিনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীদের বৈঠকের আগেই ভারত স্পষ্ট করে দিয়েছে দেশের অখণ্ডতা আর সার্বভৌমত্ব নিয়ে কোনও সমঝতা করা হবে না। শুক্রবার পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ ভি শ্রিংলা বলেছেন, চিন সীমান্তে উত্তেজনার মধ্যে ভারত তার অখণ্ডা ও সার্বভৌমত্ব বজায় রাখতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। তিনি আরও বলেন দেশের অখণ্ডতা বজায় রাখতে সবরকম পরিস্থিতির মুখোমখি হতে পারে ভারত। তবে আলোচনার মাধ্যমেই সমাধানের রাস্তা খুঁজতে ভারত আগ্রহী বলেও স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন তিনি। 

হর্ষ শ্রিংলা লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবার যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তাকেই নজিরবিহীন বলে চিহ্নিত করেছেন। পাশাপাশি তিনি বলেছেন বেশ কয়েক দশক আগেও একই চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছিল ভারত। তবে গত ৪০ বছর সীমান্তে কোনও প্রাণহানি হয়নি। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে সীমান্তে এতবিশাল পরিমাণে সৈন্য মজুত করা হয়নি। আর এই পরিস্থিতি ভাবিয়ে তুলেছে ভারতে। 


অন্যদিকে শুক্রবার রাত সাড়ে নটা নাগাদ মস্কোতে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং আর চিনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী পূর্ব লাদাখ সীমান্ত এলাকার পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক করবেন। তবে আগেই রাজনাথ সিং জানিয়ে দিয়েছেন পারস্পরিক বিশ্বাস, আগ্রাসন বিরোধী মনোভাব ও আন্তর্জাতিক নিয়মের প্রতি শ্রদ্ধা নিয়েও আলোচনায় বসা উচিত। তাহলেই শান্তিপূর্ণ সামাধান সূত্র পাওয়া যেতে পারে। ভারত চিন দুই যুযুধান দেশই সাংহাই করর্পোরেশন অর্গানাইজেশনের সদস্য। এটি মূলত সুরক্ষা ও প্রতিরক্ষা ইস্যুগুলিতে ফোকাস করে।