আগামী সপ্তাহ অর্থাৎ ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম থেকে দেশে ফ্রন্ট লাইন স্বাস্থ্য কর্মীদের টিকা দেওয়ার কাজ শুরু হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফ থেকে সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিতে এই নির্দোষ দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে জানান হয়েছে ১৬ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া স্বাস্থ্য কর্মীদের টিকাদেওয়ার কাজও একই সঙ্গে চলবে। 


স্বাস্থ্য মন্ত্রকের অতিরিক্ত সচিব মনোহর অগ্নি একটি চিঠি লিখে সংশ্লিষ্ট রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলি বলেছেন যে সংশ্লিষ্ট লাইন মন্ত্রকের সহযোগিতা ফ্রন্টলাইন কর্মীদের সমস্ত তথ্য রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে আপডেট করতে হবে। কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে কো-ইউন পোর্টালে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত ৬১ লক্ষেরও বেশি স্বাস্থ্য কর্মীকে টিকা প্রদানের বিষয়ে ডেটাবেশ আপলোড করা হয়েছে। ফ্রন্ট লাইন স্বাস্থ্য কর্মীদের টিকা প্রদানের বিষয় রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে যথাসাধ্য সহযোগিতা করা হবে বলেও চিঠিতে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনার কথাও বলা হয়েছে। 

কেন্দ্রীয় সরকারের হিসেব অনুযায়ী শুক্রবার সকাল ৮টা অবধি ২৯ লক্ষ ২৮ হাজার ৫৩ জনকে টিকা প্রদান ররা হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন - উভয় ভ্যাকসিনের প্রয়োজনীয় ডোজগুলি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিতে বরাদ্দ করা হয়েছে। পরবর্তীকালে প্রয়োজন অনুযায়ী পরিমাণ আরও বাড়ান হবে। চিঠিতে রাজ্যগুলির উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে আমি আপনাকে অনুরোধ করছি ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহ থেকে স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের সঙ্গে ফ্রন্টলাইন কর্মীদের টিকা দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় পরিকল্পনা ও পর্যালোচনা শুরু করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিন। আপনার এই সমর্থন করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন ড্রাইভের পূর্বশর্ত। আগামী ৬-৭ মাসে ৩০ কোটি মানুষকে টিকা প্রদান করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।