মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম জনপ্রিয় পত্রিকা টাইম ম্যাগাজিন তোপ দাগল। নিশানায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টাইম ম্যাগাজিনের সাম্প্রতিক প্রচ্ছদে উঠে এসেছে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর মুখ। তারই সঙ্গে রাখা রয়েছে একটি উল্লেখযোগ্য শিরোলেখ। সেখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে  'ডিভাইডার ইন চিফ' (মুখ্য বিচ্ছিনতাবাদী) আখ্যা দেওয়া হয়েছে।  সংখ্যাটির প্রচ্ছদকাহিনির শিরোনাম- 'বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র কি নরেন্দ্র মোদীর অধীনস্তই থাকবে আগামী পাঁচ বছর?' লেখক অতীশ তাসিরের স্পষ্ট তর্ক, হিন্দুত্ববাদের রাজনীতি ভারতবর্ষকে নিয়ে যাচ্ছে।

এই প্রতিবেদনে জহরলাল নেহেরুর ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্রের ধারণার সঙ্গে ভারতের বর্তমান অবস্থার তুলনা করা হয়েছে। লেখকের দাবি, 'হিন্দু মুসলিম সৌভ্রাতৃত্বের বাতাবরণ রক্ষার কোনও সদিচ্ছাই বর্তমান সরকারের নেই।' শুধু তাই নয় টেনে আনা হয়েছে গুজরাট দাঙ্গার প্রসঙ্গও। খুব সহজ ভাবে বললে প্রতিবেদকের দাবি, বর্তমান ভারতে হিন্দু মুসলিমের সম্পর্ক বৈরিতার। তার প্রধান কারণ দেশের প্রধানমন্ত্রী হিন্দুত্ববাদী। 
 

প্রসঙ্গত এই প্রথমবার পৃথিবীর অন্যতম জনপ্রিয় এই পত্রিকা নরেন্দ্র মোদীর বিষয়ে আলোচনা করছে এমনটা কিন্তু নয়। ২০১২ সালেও একটি প্রতিবেদনে তাঁকে সবচেয়ে বিতর্কিত রাজনীতিবিদ বলে দাবি করা হয়েছিল। ২০১৪ সালে জনতার ভোটে ক্ষমতার শীর্ষে আরোহণ করেছিলেন তিনি।  ২০১৫ সালে টাইম ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদকাহিনিও ছিল তাঁকে নিয়েই। ফের ভোটের দামামা বেজে চলেছে ভারতে। সাত দফা ভোটের ফল বের হবে ২৩ মে। মোদীর বিষয়ে টাইম ম্যাগাজিনের পর্যবেক্ষণ কতটা ঠিক কতটা ভুল তার উত্তর দেবে ব্যালট বক্স থুড়ি ইভিএম।