Asianet News BanglaAsianet News Bangla

২০১২ সালে গণনায় হয়েছিল ভুল, মায়া-পূর্বাভাসে চলতি সপ্তাহেই ধ্বংস হবে পৃথিবী

মায়া সভ্যতা বলেছিল ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বরই ধ্বংস হবে পৃথিবী

করোনা মহামারির আবহে ফের আলোচনায় মায়া ক্য়ালেন্ডার

বিজ্ঞানীরা বলছেন সেই সময় গণনায় ভুল হয়েছিল

জুলিয়ান ক্য়ালেন্ডার অনুযায়ী ২০২০ সালের জুন মাসেই হচ্ছে ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর

 

Alternate Mayan Calendar Reading Claims End Of The World Is Next Week
Author
Kolkata, First Published Jun 15, 2020, 7:29 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

মনে পড়ে ২০১২ সাল? মায়া সভ্যতার ক্যালেন্ডার অনুযায়ী অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন ওই বছর ২১ ডিসেম্বরই ধ্বংস হতে চলেছে পৃথিবী, ধ্বংস হতে চলেছে মানব সভ্যতা। তারপর আরও ৭টি ২১ ডিসেম্বর কেটে গিয়েছে। পৃথিবী ঘুরে চলেছে আগের মতোই। তবে ঠিক আগের মতো নয়, ২০১৯ সালের ২১ ডিসেম্বরের পর থেকে বিশ্বে নেমে আসছে একের পর এক বিপর্যয়। এই অবস্থায় ফের একবার মায়া ক্যালেন্ডার নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে। দাবি করা হচ্ছে, ক্যালেন্ডার বলছে পৃথিবীর সমাপ্তি ঘটবে এই সপ্তাহেই।

এই সপ্তাহেই মানে, পরিষ্কার করে বলা ভালো ২০২০ সালের ১৫ জুন থেকে ২১ জুনের মধ্যে কোনও এক সময়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় কনস্পিরেসি থিওরি নিয়ে যাঁরা চর্চা করেন, তাঁদের অনেকেই দাবি করছেন, এর আগে মায়া সভ্যতার ক্যালেন্ডারটি পড়তে ভুল হয়েছিল। প্রাচীন সেই ক্যালেন্ডারকে আজকের দিনের প্রচলিত ক্যালেন্ডারের সঙ্গে মেলানোর প্রক্রিয়ায় গন্ডোগোল হয়েছিল।

পাওলো তাগালগুইন নামে বিজ্ঞানী টুইট করে জানিয়েছেন, জুলিয়ান ক্যালেন্ডার অর্থাৎ জুলিয়াস সিজার যে ক্য়ালেন্ডার চালু করেছিলেন, তা অনুযায়ী আমরা এই মুহূর্তে ২০১২ সালে রয়েছি। গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অর্থাৎ বর্তমানে বিশ্বজুড়ে যে দিনগণনা পদ্ধতি সর্বাধিক চালু রয়েছে, সেই ক্যালেন্ডারে প্রতি বছর জুলিয়ান ক্যালেন্ডার থেকে বাদ পড়ে ১১টি দিন। ১৭৫২ সালে জুলিয়ান ক্যালেন্ডার ব্যবহার বন্ধ করে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার ব্যবহার করা শুরু হয়েছিল। এই ভাবে ২৬৮ বছরে (১৭৫২-২০২০) গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারে মোট ২,৯৪৮টি দিন বাদ দেওয়া হয়েছে। যা বছরে হিসাব করলে দাঁড়ায় ৮ বছর।

তাই, জুলিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসরণ করে এই বাদ পড়া দিনগুলি জুড়ে দিলে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসারে পৃথিবী ধ্বংসের দিনটি মায়া সভ্যতার পূর্বাভাস অনুযায়ী হচ্ছে ২০২০ সালের ২১ শে জুন। তাই আরও একবার দুরুদুরু বুকে পৃথিবী ধ্বংসের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। এই বছর করোনাভাইরাস মহামারি, বিশ্বের খুব কাছ দিয়ে পাহাড়প্রমাণ গ্রহাণুর চলে যাওয়া, ভয়ঙ্কর সাইক্লোন, ভূমিকম্প, বন্যা, দাবানল, পঙ্গপালের হানা - ধ্বংসযজ্ঞের উপকরণের অবশ্য কোনও অভাব নেই।   

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios