Asianet News BanglaAsianet News Bangla

School: ছাত্র-ছাত্রীরা কোভিড আক্রান্ত হলে দায় নেবে না স্কুল, সাফ জানাল শহরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

স্কুল নতুন করে খোলার পর কোভিড বিধি মেনেই পড়াশোনা শুরু হবে। তবে স্কুলে এসে কোনও ছাত্র-ছাত্রী যদি সংক্রমিত হয়, তার দায়িত্ব নেবে না স্কুল কর্তৃপক্ষ , আর এখানেই নিয়েছে বিতর্কের বীজ। 

 

Controversy has started as  The school will not take responsibility if the students has been Covid positive RTB
Author
Kolkata, First Published Nov 10, 2021, 11:23 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

স্কুল (School) নতুন করে খোলার পর কোভিড বিধি মেনেই পড়াশোনা (Study) শুরু হবে। তবে স্কুলে এসে কোনও ছাত্র-ছাত্রী যদি সংক্রমিত হয়, তার দায়িত্ব নেবে না স্কুল কর্তৃপক্ষ। পড়ুয়ারা কোভিড বিধি মেনে চলছে কিনা, তারও দায়িত্ব বর্তাবে অভিভাবকদের উপরেই।   ১৬ নভেম্বর স্কুল খোলার আগে অভিভাবকদের কাছে এমনটাই বার্তা পাঠাল শহরের অধিকাংশ স্কুল। কিছু স্কুল নোটিস (Notice) দিয়েও অভিভাবকদের (Gurdian)সতর্ক করে দিয়েছে। আর এখানেই নিয়েছে বিতর্কের বীজ। 

আরও পড়ুন, Covid-19: ছট পুজোর আগেই ফের লাগামছাড়া করোনা, একদিনে লাফিয়ে বেড়ে ৮০০ ছুঁইছুঁই রাজ্যে

স্কুলে এসে কোনও ছাত্র-ছাত্রী যদি সংক্রমিত হয়, তার দায়িত্ব নেবে না স্কুল কর্তৃপক্ষ।  ১৬ নভেম্বর স্কুল খোলার আগে অভিভাবকদের কাছে এমনটাই বার্তা পাঠাল শহরের অধিকাংশ স্কুল নোটিস দিয়ে স্কুল নিজেদের দায়িত্ব এড়ানোর চেষ্টা করছে কিনা, এনিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অভিভাবকদের একাংশ। তাঁদের দাবি, ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুলে গিয়ে কী করছে, সেদিকে দেখা সম্ভব নয়। তাই তার দায় কোনওভাবেি এড়িয়ে যেতে পারেনা স্কুল। যদিও স্কুল কর্তৃপক্ষ পাল্টা প্রশ্ন করেছে, কোভিড পরিস্থিতিতে ছাত্র-ছাত্রীদের স্বাস্থ্যের দায়িত্বভার পুরোটা কী কারণে তাঁদের উপরে বর্তাবে। অভিভাবকদের একাংশ বলেছেন, তাঁরা স্বেচ্ছায় ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠাচ্ছেন। এবং তাঁরা অসুস্থ হলে স্কুলের কোনও দায় নেই, এই শর্তে বলেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। এই শর্তটাই তুলে যুক্তির কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে অভিভাবক প্রশ্ন তুলেছেন, স্কুলে পাচ-ছয় ঘন্টা কাটানোর পর বাড়ি ফিরে কোনও পড়ুয়া অসুস্থ হলে তাঁর দায় কী সরিয়ে ফেলতে পারে স্কুল কর্তৃপক্ষ। 

আরও পড়ুন, Chhath Puja 2021- ছট পুজো নিয়ে প্রস্তুতি তুঙ্গে শহরে, ১৭০ ঘাটে এলাহি ব্যবস্থা পুরসভার

 প্রসঙ্গত, রাজ্যের স্কুল খোলা নিয়ে একপ্রকার প্রস্তুতি সেরে ফেলেছে রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দফতর ।সূত্রের খবর, একই সঙ্গে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর সব ছাত্র-ছাত্রীকে আনতে চাইছে না রাজ্য সরকার। করোনা পরিস্থিতিতে মাথায় রেখে এক একটি ক্লাসের জন্য নির্দিষ্ট সময় করে দেওয়া হতে পারে বলে খবর। তবে ইতিমধ্য়েই মুখ্যমন্ত্রীরনির্দেশ পেতেই জীবাণুমুক্ত করার কাজ শুরু রাজ্যে স্কুলগুলিতে ।  স্কুল খোলার সঙ্গে সঙ্গে রাজ্যে এবার একাধিক ক্লাস রুম করা হবে। ধাপে ধাপে স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের আনা হবে। এক একটি ক্লাসরুমে কম সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে ক্লাস করা হবে। সেক্ষেত্রে এক একটি বেঞ্চে এক একজন করেই শিক্ষার্থী বসাতে চাইছে রাজ্য। অভিভাবকদের সম্মতি নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস করতে আসতে হবে। যে অংশগুলির উপর নির্ভর করে মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হবে, সেই অংশগুলি আগে পড়ানো হবে। সেক্ষেত্রে তার জন্য নির্দিষ্ট করে প্রবেশিকা জারি করতে পারে দুই বোর্ড। উল্লেখ্য,  রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, ১৬ই নভেম্বর থেকে খুলবে রাজ্যের স্কুল ও কলেজগুলি। সেই নির্দেশ পেয়েই   স্কুল গুলি পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত করার কাজ শুরু হয়েছে।  

আরও দেখুন, বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios