বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল থেকে করোনা আক্রান্ত রুগীদের  এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। আর এর জেরেই বাঙ্গুরের নার্সরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। শুরু করেন অবস্থান বিক্ষোভ। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে যাদবপুর থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন, অনলাইনে দূরপাল্লার ট্রেনের টিকিট বুকিং চালুই রয়েছে , বিভ্রান্তি দূর করতে টুইট রেলের

শুক্রবার  বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রুগীর চাপ কমাতে, তাদেরকে এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। আর তারপরেই এমআর বাঙ্গুরের বাইরে বেরিয়ে বেরিয়ে আসেন হাসপাতালের প্রায় সকল নার্স তথা স্বাস্থ্য় কর্মীরা। প্রাথমিকভাবে ক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং শুরু করেন অবস্থায় বিক্ষোভ। এমআর বাঙ্গুরে নার্সদের বক্তব্য, যে তারা কোরোনা রুগী চিকিৎসা করবে কি করে, তাদের এবিষয়ে কোনও ট্রেনিং নেওয়া নেই। পাশাপাশি করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা করতে যে বিশেষ ড্রেস লাগে, তাও তাদের কাছে নেই। নেই চিকিৎসার জন্য় বিশেষ সরঞ্জাম বলে অভিযোগ।  

আরও পড়ুন, পাঁচিল টপকালেই ভাইরাস এক্সপার্ট সেন্টার, তবুও মুখ ফিরিয়ে মেডিক্য়াল কলেজ


শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেশে করেনা আক্রান্তের সংখ্য়া ২৩০১ ৷ সারা দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫৬ ৷ আক্রান্তের সংখ্যায় এখনও পর্যন্ত শীর্ষ স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এদিকে রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ ছাড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্য় সরকারও খুব দ্রুত আইসোলেশন সেন্টারের পাশাপাশি করোনা মোকাবিলায় আক্রান্তদের জন্য় আগাম চিকিৎসা কেন্দ্রের সংখ্য়া বাড়িয়ে চলেছেন। পাশাপাশি রাজ্য়ের প্রথম করোনার চিকিৎসা কেন্দ্রের চাপ কমাতেই বাঙ্গুরে ওই আক্রান্তদের নিয়ে আসা হয়। তবে নার্সদের বিক্ষোভের জেরে এখনও সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা রয়েছে।

 

ফের তথ্য গোপন করোনা আক্রান্ত প্রৌঢ়ের ভাইয়ের, আইসোলেশনে ভর্তি বরানগরের বাসিন্দা

জ্বর নিয়েই ট্রেন করে একটানা অফিস, ভয়ে কাঁটা রাজ্য়ের করোনা আক্রান্তর সহকর্মীরা
 

রাজ্যে আরও এক করোনা আক্রান্তের হদিশ,সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ২২