আসন্ন দিল্লি  বিধানসভা নির্বাচন ২০২০-এর জন্য ভারতীয় জনতা পার্টি তাদের প্রথম প্রার্থীতালিকা ঘোষণা করল। শুক্রবার সন্ধ্যায় দিল্লি বিজেপি-র প্রধান মনোজ তিওয়ারি ৭০ টি আসনের মধ্যে ৫৭ টির আসনের জন্য মনোনীত প্রার্থীদের তালিকা ঘোষণা করলেন। তালিকায় বেশ কিছু বিশিষ্ট বিজেপি নেতার নাম রয়েছে। তবে কোথাও নেই মনোজ তিওয়ারি-র নিজের নাম। আবার নয়াদিল্লি-তে অরবিন্দ কেজরিওয়াল-এর বিরুদ্ধে কে প্রার্থী তাও জানানো হয়নি।

৫৭ জন প্রার্থীর  তালিকায় দেখা যাচ্ছে, কপিল মিশ্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন মডেল টাউন কেন্দ্র থেকে, বিজেন্দ্র গুপ্তা লড়বেন রোহিনী আসন থেকে, শালিমার বাগ কেন্দ্রে দাঁড়িয়েছেন রেখা গুপ্তা এবং চাঁদনী চক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন সুমন কুমার গুপ্তা। ৫৭ জন প্রার্থীর মধ্যে ১১ জন তফশিলী উপজাতি-র এবং চার জন মহিলা। দলের মধ্যে তীব্র বিরোধিতা থাকলেও কংগ্রেস থেকে শিবির বদলে বিজেপি-তে আসা - সঞ্জয় সিং, সুরেন্দ্র সিং বিট্টু এবং এসসি ভ্যাটস-ও রয়েছেন তালিকায়। আছেন আপ থেকে আসা অনিল বাজপেয়ী-ও। তিনি টিকিট পেয়েছেন গান্ধীনগর কেন্দ্র থেকে।

তবে সবকিছু ছাপিয়ে যাচ্ছে একটি প্রশ্নেই, বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে? মজার বিষয় ভারতীয় গণতন্ত্রে প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনের মতো প্রধান মুখ বাছার রীতি না থাকলেও গত কয়েক বছরে বিজেপি দলই এই বিষয়টিকে প্রশ্রয় দিয়েছে। গত দুটি লোকসভা ভোট যেমন তাদের প্রচারে পর্যবসিত হয়েছিল নরেন্দ্র মোদী বনাম রাহুল গান্ধী-তে। আবার গত দিল্লি ভোট তারা লড়েছিল কিরণ বেদীকে সামনে রেখে। এইবার আপের পক্ষ থেকে কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে কে, এই প্রশ্ন ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

বিজেপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, দিল্লি বিধানসভা ভোট তাঁরা লড়ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে। কারণ এই মুহূর্তে অরবিন্দ কেজরিওয়ালেক সঙ্গে সমানে সমানে লড়ার মতো নেতার অভাব রয়েছে দিল্লি বিজেপি-তে। মনোজ তিওয়ারির পূর্বাঞ্চলীয়দের মধ্যে সামান্য জনপ্রিয়তা থাকলেও তাঁর সর্বাঙ্গীন আবেদন নেই। তাই কৌশলেই বিজেপির পক্ষ থেকে নয়াদিল্লি আসন ফাঁকা রাখা হল। মনোজ তিওয়ারির নামও প্রার্থী তালিকায় রাখা হল না বলে মনে করা হচ্ছে। তবে এতে আপের প্রচার, 'কেজরিওয়াল নাহলে কে' আরও বাড়বে বলেই মনে করচে রাজনৈতিক মহল। আপ নেতাদের কেউ কেউ এখনই ব্যঙ্গ করে বলছেন, তাহলে কি কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে নরেন্দ্র মোদী?