ফের মসজিদ ভাঙার হুমকি দিলেন পশ্চিম দিল্লির বিজেপি সাংসদ পরবেশ ভার্মা। গত বছরই তিনি অবৈধভাবে সরকারি জমি দখল করে মসজিদ ও গোরস্থান নির্মাণের প্রসঙ্গ তুলেছিলেন। দিল্লির বিধানসভা ভোটের আগে সোমবার ফের তিনি বললেন, দিল্লিতে সরকারী জমিতে নির্মিত মসজিদ ও গোরস্থানগুলি ভেঙে দেওয়া হবে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে ফের একবার বিভাজনের রাজনীতিতে বাজিমাত করতে চাইছে বিজেপি।

গত বছর জুন মাসে পশ্চিম দিল্লির এই বিজেপি সাংসদ দিল্লির লেফট্যানেন্ট গভর্নর অনিল বৈজাল-কে চিঠি লিখে সরকারি জমিতে অবৈধভাবে নির্মিত মসজিদ ও কবরস্থানগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আবেদন করেছিলেন। বিজেপি নেতার দাবি ছিল, তাঁর নির্বাচনী এলাকার লোকজন তাঁর কাছে এই নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছেন। গভর্নরকে লেখা সেই চিঠি-তে এই জাতীয় ৫০টিরও বেশি ঘটনার তালিকা দেওয়ার দাবিও করেছিলেন।  

এদিন তিনি বলেন, সরকারি জমি দখল করে কেউ মন্দির বা গুরুদ্বার নির্মাণের অভিযোগ করলেও তা তিনি লেফটেন্যান্ট গভর্নরকে জানাতেন। কিন্তু, তাঁর দাবি সরকারি জমিতে অবৈধভাবে কোনও মন্দির বা গুরুদ্বার তৈরি হয়েছে এমনটা ঘটেনি। শুধু মসজিদ ও কবরস্থানই পাওয়া গিয়েছে। আর সরকারি জমি দখল করে নির্মিত মসজিদগুলি নিশ্চিতভাবে ভেঙে ফেলা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

গত বছর পরবেশ ভার্মা এই বিষয়ে অভিযোগ করার পর, দিল্লির সংখ্যালঘু কমিশন একটি অনুসন্ধান কমিটি গঠন করেছিল। শহরের মোট ৬৮ টি মসজিদ, কবরস্থান, মাদ্রাসা ও ইমামবাড়া পরিদর্শন করে সেই কমিটি অবশ্য জানিয়েছিল, পশ্চিম দিল্লির সাংসদের দাবি সর্বৈব 'মিথ্যা'। এমনকী তারা এই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার সুপারিশও করেছে।