জ্যোতিষশাস্ত্র হল ব্যাপক, যা মূলত আকাশে অর্থের অনুসন্ধান করে। জ্যোতির্বিদ্যা চক্রের রেফারেন্সের মাধ্যমে পরিমাপ, রেকর্ড এবং ঋতুগত পরিবর্তনগুলির পূর্বাভাসের জন্য মানুষের সচেতন প্রচেষ্টার প্রারম্ভিক প্রমাণগুলি হাড়ের উপর এবং গুহার দেয়ালে আঁকা চিহ্ন থেকে পাওয়া গিয়েছিল, তা থেকে অনুমান করা হয় যে চন্দ্র চক্রটি ২৫০০০ বছর আগে উল্লেখ করা হয়েছিল। এটি চাঁদ এবং নদীগুলির উপর চাঁদের প্রভাব এবং একটি সাম্প্রদায়িক ক্যালেন্ডার সংগঠনের বিষয়গুলি রেকর্ড করার প্রথম পদক্ষেপ ছিল।

আরও পড়ুন- বুধবার সারাদিন কেমন কাটবে আপনার,দেখে নিন আজকের রাশিফল

অনেক সংস্কৃতির মধ্যেই জ্যোতির্বিজ্ঞানের ঘটনাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। ভারতীয়, চীনা ও মায়া সভ্যতার অধিবাসীগণ মহাকাশ পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে পার্থিব ঘটনাগুলির ভবিষ্যদ্বাণী করার জন্য এই বিষয়ের চর্চা এবং উন্নয়ন সাধন করেছিলেন। পশ্চিমে, জ্যোতিষশাস্ত্র প্রায়ই একজন ব্যক্তির ব্যক্তিত্বের ব্যাখ্যা করার জন্য এবং তার জন্মের সময় সূর্য, চন্দ্র, এবং অন্যান্য জ্যোতিষ্কগুলির অবস্থানের উপর ভিত্তি করে তার জীবনের ভবিষ্যদ্বাণী করার জন্য ব্যবহৃত হত। জ্যোতিষশাস্ত্র অতি প্রাচীন এবং এটি বিভিন্ন সময়ে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে বিভিন্ন সভ্যতার মানবগোষ্ঠির দ্বারা চর্চিত, পরিবর্তিত ও পরিবর্ধিত হয়েছে। তাই কোন একটি বিশেষ সময়কে জ্যোতিষশাস্ত্রের সৃষ্টিকাল হিসেবে চিহ্নিত করা যুক্তিযুক্ত নয়। এই জ্যোতিষশাস্ত্র মতে আপনার লগ্নের দ্বারাই জানা যায় কেমন হতে পারে আপনার জীবন সঙ্গী। জন্ম কুণ্ডলী বিচার করলে আরও বিস্তারিত তথ্য জানতে পারা যায়। তবে লগ্ন অনুযায়ী জেনে নেওয়া যাক কেমন হবে আপনার জীবনসঙ্গী।

আরও পড়ুন- বাস্তুর নিয়ম মেনে বাড়িতে শুভ শক্তি ফিরিয়ে আনুন, সব অশান্তির থেকে মুক্তি পান

 যাদের মীন লগ্ন তাদের জীবনসঙ্গী অত্যন্ত ভোজন রসিক হয়ে থাকে। বয়সের তুলনায় দেখতে কম বয়সের হয়। 

কুম্ভ লগ্ন যাদের তাদের জীবনসঙ্গীর হার্ট ও চোখের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এদের জীবসঙ্গীর খুব নাম ও যশ থাকে।

মকর লগ্নের জীবনসঙ্গী দেখতে খুব ফর্সা ও সুন্দর হয়। তবে এদের সর্দি-কাশির সমস্যা থাকে।

ধনু লগ্নের জাতক-জাতিকার জীবনসঙ্গীদের জীবন প্রেম আসে একাধিকবার। এদের সিদ্ধান্ত গ্রহণের সমস্যাও দেখা যায়।

বৃশ্চিক লগ্নের জীবনসঙ্গী দেখতে সুন্দর ও উচ্চাকাঙ্খী হয়ে থাকে। এদের বিবাহিত জীবনে বহুবার সমস্যা দেখা দেয়। 

তুলা লগ্নের জীবনসঙ্গীর বিয়ের পরেই আর্থিক উন্নতি হয়। তবে এদের ঝামেলা ঝঞ্জাট নিয়েই বেশির ভাগ সময় কেটে যায়।