খরচের পরিমাণ কমানোর অনেক চেষ্টা করা সত্ত্বেও কোনওভাবেই খরচ কমাতে পারছেন না। যত দিন যাচ্ছে ততই যেন ব্যয়ের পরিমাণ বাড়ছে। অনেক টাকা রোজগার করা সত্ত্বেও কোনওভাবেই হাতে টাকা থাকে না। কোনওভাবে টাকা জমিয়ে রাখলেও মাসের শেষে ঠিক কোনও না কোনওভাবে টাকা খরচ হয়েই যায়। বাস্তুশাস্ত্রবিদরা বলেন কয়েকটি উপায় অবলম্বন করলেই কমবে খরচের পরিমাণ এবং বাড়বে সঞ্চয়। 

১) অনেকেই প্যান্টের পিছনের পকেটে টাকা রাখেন। বাস্তুশাস্ত্র বলে এটি কখনওই ঠিক নয়।  যদি সঞ্চয়ের পরিমাণ বাড়াতে চান তাহলে অবশ্যই চেষ্টা করুন সামনের পকেটে টাকা রাখতে।

২) শোওয়ার ঘরের ঢোকার মুখে দেওয়ালের সামনে বাম দিকে ধাতুর কোনও জিনিস ঝুলিয়ে রাখুন। সেই ধাতু হতে পারে তামা,পিতল,রুপো বা অন্য কোনও কিছু। তবে সেটি যেন সকলের চোখে পড়ে। বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী,শোওয়ার ঘরে এই স্থানে কোনও ধাতুন জিনিস দৃশ্যমান হলে তা আর্থিক ক্ষেত্রে সৌভাগ্য বহন করে।

৩)বাস্তুশাস্ত্রবিদরা বলেন, কল থেকে ক্রমাগত জল পড়তে থাকলে তা আর্থিক ক্ষতির ইঙ্গিত দেয়। তাই বাড়িতে কোনও জলের কল খারাপ হয়ে গেলে তা বদলে ফেলাই উচিত।

৪) বাস্তুশাস্ত্রবিদরা বলেন, বাড়ির জলের নিকাশি ব্যবস্থা বেশ কতকগুলি বিষয়কে প্রভাবিত করে। যাদের বাড়িতে জলের নিকাশি ব্যবস্থা দক্ষিণ বা পশ্চিম দিকে হয়, তারা আর্থিক ক্ষতির পাশাপাশি অন্যান্য ক্ষয়-ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারেন।সেক্ষেত্রে উত্তর ও পূর্ব দিকে জলের নিকাশি শুভ।

৫) অনেকের স্বভাব থাকে আলমারি খুলে রেখে দেওয়া। সেটা কখনই উচিৎ নয়। টাকা রাখার সিন্দুক বা আলমারি সবসময় বন্ধ করে রাখুন। না হলে অর্থভাগ্য খারাপ হতে পারে। 

৬) অনেকেই সঠিক দিকে টাকার আলমারি বা সিন্দুক না রাখার জন্যই খরচ বাড়ে বলে মনে করেন বাস্তুবিদরা। বাস্তুশাস্ত্রে বলা হয় যে, দক্ষিণদিকে পিছন করে টাকার আলমারি রাখা উচিত। তাতে অর্থভাগ্য ভাল হয় বলে মনে করেন বাস্তুবিদরা।