• মেষ- এই রাশির জাতকরা খুবই আত্মবিশ্বাসী, কর্মোদ্যমী,  অ্যাডভেঞ্চার-প্রিয়, ও ইতিবাচক মানসিকতার হয়ে থাকেন।
  • বৃষ- এই রাশির জাতকরা খুবই ধৈর্যশীল, ভরসাযোগ্য ও বিশ্বাসযোগ্য হয়ে থাকেন। 
  • মিথুন- এই রাশির জাতকরা মনের দিক থেকে তরুণ, প্রাণোচ্ছল, এবং বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী হয়ে থাকেন। 
  • কর্কট- এই রাশির জাতকরা  কল্পনাপ্রবণ এবং দূরদর্শী প্রকৃতির হয়ে থাকেন।   
  • সিংহ-এই রাশির জাতকরা অত্যন্ত সৃজনশীল প্রকৃতির মানুষ। অত্যন্ত ভদ্র ও নম্র প্রকৃতির হওয়ায় এরা খুব সহজেই অন্যের মন জয় করে নিতে পারেন। 
  • কন্যা- এই রাশির জাতকরা অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য মানুষ।  যুক্তি ও বাস্তববোধের দিক থেকে এরা সকলের থেকে আলাদা।   
  • তুলা-এই রাশির জাতকরা আদর্শ মেনে চলে। এবং এর পাশাপাশি এরা অত্যন্ত শান্তিপ্রিয়, রোম্যান্টিক মনের মানুষ হন। 
  • বৃশ্চিক- নিজের প্যাশনের প্রতি খুবই সক্রিয় এই রাশির জাতকরা।
  • ধনু- এই রাশির জাতকরা মেধাবী, প্রাণখোলা, স্বাধীনচেতা এবং নিজের প্রতি আশাবাদী প্রকৃতির মানুষ। 

  • মকর- এই রাশির জাতকরা অত্যন্ত ধৈর্যশীল। উচ্চাকাঙ্ক্ষী কিন্তু  বাস্তববাদী। নিয়ম-শৃঙ্খলার প্রশ্নে ভীষণরকম পার্টিকুলার। 
  • কুম্ভ- এই রাশির জাতকরা বন্ধুর প্রতি অনুগত,  স্বাধীনচেতা এবং অসাধারণ উদ্ভাবনী ক্ষমতার অধিকারী।   
  • মীন- এই রাশির জাতকরা কল্পনাপ্রবণ,সহমর্মী এবং অন্যের স্বার্থ বড় করে দেখাই এদের সবথেকে বড় গুণ।