ঈশ্বরের প্রতি বিশ্বাস কম-বেশি সকলেরই রয়েছে। আর এই বিশ্বাসের উপর ভর করেই অনেক মানুষ অনেক বাধা-বিপত্তি কাটিয়ে উঠতে পারেন। তবে কেবলমাত্র অন্ধবিশ্বাসই নয়, ঠাকুরপুজের মাধ্যমে মনের  একাগ্রতা বাড়ে, কর্মে নতুন উদ্যোম ফিরে পাওয়া যায়। তবে পুজার্চনারক্ষেত্রে কিছু নিয়ম সকলেই মেনে চলেন, অর্থাৎ কোন সময়ে পুজো করা উচিত, কী কী উপাচার সহযোগে পুজো করলে তা শুভ ইত্যাতি। তবে এবার জেনে নিন যে, পূরাণ সপ্তাহের কোন দিনে কোন দেবতার পুজো করা উচিত। 

  • সোমবার- সোমবার মহাদেবের জন্মবার। তাই সোমবার শিব ঠাকুরের পুজো করা উচিত। অনেকেই সপ্তাহের এই দিনে নিরামিষ খান, অনেকে আবার উপোসও থাকেন। এই দিনে মহাদেবকে দুধ দিয়ে স্নান করিয়ে ও বেলপাতা দিয়ে পুজো দিলে মহাদেবের আশীর্বাদ প্রাপ্ত হবেন।   
  • মঙ্গলবার- মঙ্গলবার বজরঙ্গবলীর পুজো করলে মিলবে সৌভাগ্য, কেটে যাবে সকল সংকট। তাই তো তিনি সংকটমোচন। এই দিনে গেরুয়া বসন, লাল ফুল, লাল চন্দন এবং গেরুয়া সিঁদুর সহযোগে হনুমানজীর পুজো করলে যে-কোনও রকমের বাধা-বিপত্তি থেকে উদ্ধার পাবেন। 
  • বুধবার- এই দিনে গণেশ পুজো করা উচিত বলে পূরাণ। জীবনে যদি অধিক ধন-সম্পদের অধিকারী হতে চান , তাহলে বুধবার করে অবশ্যই গণেশ পুজো করুন। প্রসাদে তাঁকে অর্পণ করুন লাড্ডু। 
  • বৃহস্পতিবার- বৃহস্পতিবার মানেই বাঙালির ঘরে ঘরে চলে লক্ষ্মীদেবীর আরাধনা। ধন সম্পত্তি, অর্থ, প্রতিপত্তি লাভ এবং ব্যবসায়ে শ্রী বৃদ্ধির জন্য বৃহস্পতিবারে মা লক্ষ্মীর আরাধনা করেন সাধারণ মানুষ। এইদিন মা লক্ষ্মীর পাঁচালী পাঠ করলে ধনদেবী খুবই সন্তুষ্ট হন। 
  • শুক্রবার- শুক্রবারে দেবী শক্তির আরাধনা করার দিন। এই দিনে তাই দেবী দুর্গা, সন্তোষী মা-র আরাধনা করলে দেবীর আশীর্বাদ আপনার ওপর সহায় হবে। 

  • শনিবার- এই দিনে শনিদেবের পুজো করুন। সেই সঙ্গে শক্তির উৎস মা কালীর পুজো করলেও শুভ ফল মিলবে। সেইসঙ্গে কেটে যাবে সকল বাধা। 
  • রবিবার- রবিবার সূর্য দেবের পুজো করলে মিলবে সুফল। বলা হয় এইদিনে সূর্যদেবের পুজো করলে অনেক ফাঁড়া কেটে যায়। প্রতি রবিবার সকালে সূর্যপ্রণাম করলে মানসিকভাবেও শান্তি লাভ করা যায়।