রাশিফল অনুসারে মানুষের চরিত্র সম্পর্কে অনেক কিছুই জানা যায়। কোন মানুষ কেমন স্বভাবের তা অনেকটাই বলে দিতে পারে রাশিফল। তবে জানেন কী,রাশি ফল অনুযায়ী পাঁচটি রাশির মানুষকে কখনোই বিশ্বাস করতে নেই। আর এদের বিশ্বাস করা মানেই নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনা।

মিথুন- বলা হয় এই রাশির জাতক জাতিকাদের মধ্যে দুটি স্বত্বা রয়েছে। একটা মুখোশ পড়া আর একটা আসল।তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এরা মুখোশধারী হয়েই যাবতীয় কাজ করে। এরা এক একজনের সামনে এক একরকম আচরণ করে, এবং তাঁদের অনুপস্থিতিতে তাদের পিছনে ঠিক অন্য আচরণ করে। এরা সামনে ভাল কথা বলে কারওর মন জয় করলেও পিছনে তার নিন্দা করতে দু-বার ভাবে না।

সিংহ- এই রাশির জাতক জাতিকাদের মধ্যে অহংকার অনেকটাই বেশি। বলা হয় এই রাশির জাতক বা জাতিকারা সঙ্গী হিসাবে একেবারেই বিশ্বাসযোগ্য নয়। এরা সঙ্গীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতে চায়। কিন্তু সঙ্গী তার মনের মতো কাজ না করলে এরা অন্যের প্রতি আকৃষ্ট হতে বেশি সময় নেয় না।

মিন- বলা হয় এই রাশির জাতক জাতিকাদের মধ্যেও দুটি স্বত্বা রয়েছে। এদেরও মুখে এক, মনে আর এক। এরা বাস্তবের সাথে তাল মিলিয়ে একদমই  চলতে পারে না। এরা নিত্য নতুন মানুষের সঙ্গ খুবই ভালবাসেন, আর সেই কারণেই একাধিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার মানসিকতা থাকে। 

বৃশ্চিক- এই রাশির জাতক জাতিকাদের মধ্যে প্রতিশোধ প্রবণতা কাজ করে। তবে এদের মন খুব ভাল হয়। কিন্তু কেউ এদের ভালবাসলে দিলে তাকে দ্বিগুণ ভালবাসা ফিরিয়ে দেয় এবং কেউ বিশ্বাসঘাতকতা করলে তাকে দ্বিগুণ বিশ্বাসঘাতকতা ফিরিয়ে দেওয়ার মানসিকতা থাকে এদের। 

ধনু- এই ধনু রাশির জাতক জাতিকারা সাধারণত  অধৈর্য্য প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা অসাধারণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী হওয়া কারণে এদের মধ্যে একাধিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার একটা প্রবণতা দেখা দেয়। তাই সম্পর্কের ক্ষেত্রে এই রাসির জাতক- জাতিকাদের বিশ্বাস করা খুবই কঠিন।