• মেষ- যে কোনো সম্পর্কে মেষ রাশির জাতকরা যেহেতু নিজেরা অকারণে মিথ্যা কথা বলেন না, তাই এরা সঙ্গীর কাছ থেকেও মিথ্যা আশা করেন না। সম্পর্কে বিশ্বাস  নেকখানি স্থান পায় এদের কাছে। 
  • বৃষ- বৃষ রাশির জাতকরা খুবই ধৈর্যশীল প্রকৃতির হয়ে থাকেন। তাই চট করে মাথা গরম করে ফেলেন মন মানুষ এরা পছন্দ করেন না। ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি সামাল দিতে পারলেই একজন বৃষ রাশির জাতক বা জাতিকার মন জয় করা যায়।
  • মিথুন- মিথুন রাশির জাতকদের মন খুবই চঞ্চল, এরা কখন কোন মুডে থাকেন তা বলা মুশকিল। তাই মিথুন রাশির মানুষের সঙ্গী হতে গেলে প্রচুর ধৈর্যের প্রয়োজন।
  • কর্কট- এই রাশির মানুষরা খুবই নরম মনের হন। তাই এরা অন্যের কাছ থেকে নম্র ও ভদ্র ব্যবহার আশা করেন। তাদের ছোট ছোট পছন্দ-অপছন্দের খেয়াল রাখে এমন মানুষই এরা পছন্দ করেন। 
  • সিংহ- ছোট-খাটো বিষয়ে ট্রিট বা উপহার দেন এমন মনের মানুষ এই রাশির জাতকরা খুবই পছন্দ করেন। কারণ এই রাশির জাতকরা নিজেরাও এই বিষয়টি পছন্দ করেন। 
  • কন্যা- যেকোনও বিষয়ে খুঁটিয়ে দেখা এই রাশির স্বভাবসিদ্ধ। তাই তাঁর সঙ্গীও যদি সামান্য সামান্য জিনিস খুঁটিয়ে দেখেন তাহলে তাতেই খুশি কন্যা রাশির জাতকরা।
  •  তুলা- হাসিখুশি প্রাণোচ্ছল মানুষকেই নিজের জীবনসঙ্গী হিসাবে পছন্দ করেন এই রাশির জাতকরা।
  • বৃশ্চিক- আত্মবিশ্বাসী এবং  নিজের ওপর বিশ্বাস অগাধ এমন মানুষকেই  নিজের জীবনসঙ্গী হিসাবে পছন্দ করেন এই রাশির জাতকরা।
  • ধনু- জীবনে ইতিবাচক ভাবনা-চিন্তা করেন এমন এবং জীবনের প্রতি আশাবাদী এমন মানুষকেই  নিজের জীবনসঙ্গী হিসাবে পছন্দ করেন এই রাশির জাতকরা।

  • মকর-জীবনে নিজের লক্ষ্যে অবিচল এমন মানুষকেই  নিজের জীবনসঙ্গী হিসাবে পছন্দ করেন এই রাশির জাতকরা। তাই লক্ষ্যহীন ব্যক্তিদের সঙ্গে তারা একেবারেই মানিয়ে নিয়ে চলতে পারেন না। 
  • কুম্ভ-  স্বাধীনচেতা প্রকৃতির মানুষকেই নিজের জীবনসঙ্গী হিসাবে পছন্দ করেন এই রাশির জাতকরা। এমন ব্যক্তি , যারা অন্যের ব্যক্তিস্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবেন না এমন মানুষকেই বেছে নেন তাঁরা। 
  • মীন- নিজের স্বার্থ নিয়ে চলেন এমন মানুষ একেবারেই পছন্দ করেন না এই রাশির জাতকরা। এঁদের মনে স্বার্থপর মানুষের কোনও স্থান নেই।