বর্তমানে প্রশ্নকর্তার জন্মসময়, তারিখ এবং জন্মস্থানের ভিত্তিতে, জন্মকালে মহাকাশে গ্রহের অবস্থান নিরুপণ করে অথবা প্রশ্নের সময় গ্রহাদির অবস্থান নির্ণয় করে, অথবা হস্তরেখাবিচার, শরীরের চিহ্নবিচার ইত্যাদি বিভিন্ন পদ্ধতির ব্যবহারে প্রশ্নকর্তার ভবিষ্যতের গতিপ্রকৃতি নির্ধারণ করার জ্ঞান ও পদ্ধতিকে জ্যোতিষশাস্ত্র বলা হয়। আবার জ্যোতিষশাস্ত্রের একটি বিভাগ দেশ, রাজ্য, শহর, গ্রাম ইত্যাদির এবং প্রাকৃতিক ঘটনাবলীর যেমন বৃষ্টি, অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, ভূমিকম্প, ঝড়, ঝঞ্ঝা, মহামারী বা প্লাবণের ভবিষ্যদ্বাণী করতেও ব্যবহৃত হয়। তবে অনেকেই আছেন যারা এই শ্রাস্ত্রকে বিশ্বাস করেন না। আর যারা বিশ্বাস করেন তাদের তো আর কথাই নেই। তবে বিশ্বাস অবিশ্বাসের কথার উপরে জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে এমন কয়েকটি রাশি রয়েছে যাদের আগামী বছরে কর্মক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিতে পারে বলে মনে করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে একবার দেখে নিন সেই তালিকায় আপনার রাশিটি আছে কী না।

আরও পড়ুন- মঙ্গলবারের সারাদিন কেমন কাটবে, দেখে নিন আজকের রাশিফল

মেষ রাশির কাজে উৎসাহের অভাবের জন্যই এই রাশির জাতকরা কর্মক্ষেত্রে বেশিদিন টিকে থাকতে পারে না। এরা স্বভাবের দিক থেকে খুব একগুঁয়ে।  কোনও কাজ নিজের বুদ্ধি দিয়ে করার জন্য এদের মধ্যে সংস্থার উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অমান্য় করার প্রবণতাও থাকে। তাই চাকরিক্ষেত্রে এদের মেয়াদও খুব তাড়াতাড়ি ফুরিয়ে আসে। তবে নতুন বছরে এই রাশির চাকরি ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর্থিক সমস্যা দেখা দিলেও তা কাটিয়ে উঠতে পারবেন সহজেই। 

আরও পড়ুন- সঞ্চয় বৃদ্ধি করতে চান, বাস্তু মতে মেনে চলুন এই নিয়মগুলি

বৃশ্চিক রাশির জাতকরা নিজেদের দৃঢ় সংকল্পের জোরে কোনও কোম্পানির একটি অপরিহার্য অঙ্গ হয়ে উঠলেও এদের মধ্যে ক্ষমতার শীর্ষে পৌঁছানোর একটা প্রবণতা দেখা যায়। যার ফলে এরা সহকর্মীদের চক্ষুশূল হয়ে ওঠেন। শুধু তাই নয় এদের প্রতিশোধ প্রবণতার জন্য কর্মক্ষেত্রে এদের শত্রুর সংখ্যা বাড়ে। ফলে চাকরি ক্ষেত্রে এদের মেয়াদও খুব তাড়াতাড়ি ফুরিয়ে আসে। নতুন বছরে  এই রাশির জাতক জাতিকাদের কর্মক্ষেত্রের সমস্যা দেখা দিলেও তা কাটিয়ে উঠতে পারবেন সহজেই।

আরও পড়ুন- আজ রাত ১২ টার পরই ভাগ্য খুলবে এই ৫ নামের ব্যক্তিদের, দেখে নিন আপনারটা

মিথুন রাশির জাতকরা কিন্তু খুবই বুদ্ধিমান এবং বহুমুখী প্রতিভাধর হয়ে থাকেন। তবে কর্মক্ষেত্রে এরা খুবই অস্থির মস্কিষ্ক, উদাসীন এবং অধৈর্য প্রকৃতির হয়ে থাকেন। কর্মক্ষেত্রে এদের একটা অন্যতম সমস্যা হল যে, এরা কারওর দ্বারা চালিত হতে একেবারেই পছন্দ করেন না। মিথুন রাশির এই বিষয়টাই সংস্থার উচ্চপদস্থরা একেবারেই মেনে নিতে পারেন না। আর সেই কারণেই চাকরি থেকে বরখাস্তের নোটিশ পেতে এদের বেশি সময় লাগে। এই রাশির নতুন বছরে সমস্যা দেখা দিলেও তা সহজেই কাটিয়ে উঠতে পারবেন।