প্রাচীন গ্রিক জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুসারে বলা হয় যে, কেবলমাত্র জন্মতারিখই বলে দিতে পারে যে কোন ব্যক্তি কোন রাশির জাতক। আর সেই রাশির ভিত্তিতেই সংশ্লিষ্ট রাশির জাতক-জাতিকার ভাগ্য নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে রাশির ওপর নির্ভর করে কোন রাশির কোন পাথর ধারণ করলে সৌভাগ্য বয়ে নিয়ে আসবে তা নির্ধারণ করা যায়। তবে রাশির পাশাপাশি জন্মতারিখের ওপর ভিত্তি করেও পাথর প্রদান করা হয়ে থাকে। পাশাপাশি আলাদা আলাদা উদ্দেশ্য পূরণ করার জন্যেও কিন্তু আলাদা আলাদা পাথর নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। যেমন পড়াশোনার জন্য একরকম পাথর, শরীর-স্বাস্থ্যের জন্য আর একরকম পাথর ইত্যাদি। এবার এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক কোন রাশির জন্য কোন পাথর ধারণ করা শুভ।
 
১) মেষ- মেষ রাশির জন্য উপযুক্ত শুভ পাথর হল হীরে।

২) বৃষ- বৃষ রাশির জাতকরা যে পাথর ধারণ করলে শুভ ফল পাবেন তা হল পান্না।

৩) মিথুন-  মিথুন রাশির জন্য উপযুক্ত শুভ পাথর হল মুক্তো।

৪) কর্কট- কর্কট রাশির জাতকরা যে পাথর ধারণ করলে শুভ ফল পাবেন তা হল চুনি।

৫)  সিংহ- সিংহ রাশির জাতকদের জন্য শুভ পাথর হল সারডনিক্স।

৬) কন্যা- কন্যা রাশির জাতকরা যে পাথর ধারণ করলে শুভ ফল পাবেন তা হল নীলা।

৭) তুলা- তুলা রাশির জাতকদের জন্য শুভ পাথর হল ওপ্যাল।

৮) বৃশ্চিক- বৃশ্চিক রাশির জাতকরা যে পাথর ধারণ করলে শুভ ফল পাবেন তা হল পোখরাজ।

 ৯) ধনু-  ধনু রাশির জাতকরা ফিরোজা পাথর ধারণ করলে উপকার পাবেন।

১০) মকর- মকর রাশির জাতকরা যে পাথর ধারণ করলে শুভ ফল পাবেন তা হল তামড়ি।

১১)কুম্ভ- কুম্ভ রাশির জাতকরা রাজবর্ত্ম পাথর ধারণ করলে উপকার পাবেন।  

১২) মীন- মীন রাশির জাতকরা যে পাথর ধারণ করলে শুভ ফল পাবেন তা হল অ্যাকুয়ামেরিন।