Asianet News Bangla

শ্রাবণ মাসে জন্ম, তবে আপনার মধ্যে এই রয়েছে এই বিশেষ গুণগুলি

  • জাতক বা জাতিকার জন্ম মাস তাঁর ব্যক্তিত্ব বা ভাগ্য় নির্ধারণে সাহায্য করে
  • কোনও ব্যক্তির আচরণ এবং চরিত্রের বৈশিষ্ট্য নির্ভর করে জন্ম সময়, কাল বা জন্ম মাসের উপর
  • জাতকের ভাগ্য সম্পর্কে অনুমান করা সম্ভব তাঁর জন্ম মাস থেকে
  • জেনে নিন শ্রাবণ  মাসে জন্ম জাতক বা জাতিকার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে
If Your birth month is Sravan then know about your personlity BDD
Author
Kolkata, First Published Jul 16, 2020, 12:58 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, জাতক বা জাতিকার জন্ম মাস তাঁর ব্যক্তিত্ব বা ভাগ্য় নির্ধারণে সাহায্য করে। একইভাবে কোনও ব্যক্তির আচরণ এবং তাঁর চরিত্রের বৈশিষ্ট্য নির্ভর করে সেই ব্যক্তির জন্ম সময়, কাল বা জন্ম মাসের উপর। জাতকের ভাগ্য সম্পর্কে অনেক কিছুই বলে দেওয়া সম্ভব তাঁর জন্ম, জন্মবার এবং জন্মমাস থেকে। জ্যোতিষশাস্ত্র অনুযায়ী, শ্রাবণ  মাসে জন্মগ্রহণ করলে, জেনে নিন সেই জাতক বা জাতিকার ব্যক্তিত্ব সম্বর্কে। শ্রাবণ মাসে জন্ম হলে তাঁরা খুব ভদ্র স্বভাবের হয়ে থাকে, অথবা সে অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকে। এরা কর্মে বিশ্বাসী। তাই খুব চিন্তা ভাবনা করেই খরচ করেন। তাই অনেকেই এদের স্বার্থপর বা কৃপণ বলে মনে করেন।

শ্রাবণ মাসে জন্ম হলে এদের জীবন বাধা-বিঘ্ন লেগেই থাকে। এরা আড়ালে বা গুটিয়ে থাকতেই বেশি পছন্দ করেন। স্বপ্ন সার্থক করার জন্য প্রচুর চেষ্টা করতে হয়। এরা উচ্চাভিলাসী। এরা তার জন্য প্রচুর পরিশ্রমও করতে সক্ষম। এরা কোনও কাজ করবে বলে মনে করলে কিছুতেই তার থেকে পিছ পা হন না। এদের দৃঢ় মানসিকতা এবং ইচ্ছাশক্তি অদম্য। এরা সাধারণত জ্যোতিষ, বিচারক, উকিল,পত্রিকার সম্পাদক, হিসাব পরীক্ষক, অধ্যাপক,উচ্চপদস্থ কর্মচারী বা বড় ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন। এদের মানসিক শক্তি অত্যন্ত প্রবল ও দৃঢ় হওয়ার কারণে এরা জীবনে সমস্ত বাধা বিঘ্ন কাটিয়ে সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়।  এই মাসে যাদের জন্ম তারা আলাপী, ভদ্র স্বভাবের হয়ে থাকে। এই মাসে জন্ম হলে জাতক বা জাতিকা অত্যন্ত চতুর প্রকৃতির হয়, এদের মনের আন্দাজ করা সহজ নয়। 

বর্তমানে প্রশ্নকর্তার জন্মসময়, তারিখ এবং জন্মস্থানের ভিত্তিতে, জন্মকালে মহাকাশে গ্রহের অবস্থান নিরুপণ করে অথবা প্রশ্নের সময় গ্রহাদির অবস্থান নির্ণয় করে, অথবা হস্তরেখাবিচার, শরীরের চিহ্নবিচার ইত্যাদি বিভিন্ন পদ্ধতির ব্যবহারে প্রশ্নকর্তার ভবিষ্যতের গতিপ্রকৃতি নির্ধারণ করার জ্ঞান ও পদ্ধতিকে জ্যোতিষশাস্ত্র বলা হয়। আবার জ্যোতিষশাস্ত্রের একটি বিভাগ দেশ, রাজ্য, শহর, গ্রাম ইত্যাদির এবং প্রাকৃতিক ঘটনাবলীর যেমন বৃষ্টি, অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, ভূমিকম্প, ঝড়, ঝঞ্ঝা, মহামারী বা প্লাবণের ভবিষ্যদ্বাণী করতেও ব্যবহৃত হয়।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios