স্বস্তিক একটি সংস্কৃত শব্দ। সাধারণ অর্থে কল্যাণ বা মঙ্গল বোঝায়। এর নির্দিষ্ট কোন অর্থ নেই। যেহেতু সূর্য নিজেই সৌভাগ্য, সৃষ্টি এবং জীবনের প্রতীক, তাই সূর্যদেবতার সাথে স্বস্তিক চিহ্নর একধরনের সম্পর্ক টানতে চেয়েছেন অনেকেই। তবে সকল দিক এবং মত অনুসারেই স্বস্তিক শুভের চিহ্ন। হাজার বছর ধরে হিন্দু, বৌদ্ধ এবং জৈন ধর্মের অনুসারীদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে রেখেছে প্রতীকটি। সংস্কৃত শব্দ স্বস্তিক চিহ্ন। সাধারণ অর্থে কল্যাণ বা মঙ্গল। হাজার বছর ধরে হিন্দু, বৌদ্ধ এবং জৈন ধর্মের অনুসারীদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে রেখেছে প্রতীকটি।

আরও পড়ুন- কু-প্রভাব থেকে বাড়িকে রক্ষা করতে, বাস্তু মতে পালন করুন এই নিয়মগুলি

সমস্ত দেবদেবীর উপাসনার স্থানে স্বস্তিক চিহ্ন দেওয়ার রীতি রয়েছে। এই শুভ লক্ষণটি সিদ্ধিদাতা গণেশের প্রতীক। এটি বিশ্বাস করা হয় যে স্বস্তিক চিহ্ন দিয়ে পুজো করলে সাফল্যের সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায় এবং কোনও বাধা ছাড়াই উপাসনা শেষ হয়। স্বস্তিক চিহ্ন নেতিবাচক শক্তি অপচয় করে এবং ইতিবাচকতা বাড়ায়। শাস্ত্র মতে, স্বস্তিক চিহ্ন সম্পর্কিত কিছু বিশেষ বিষয় রয়েছে যা সর্বদা যত্ন নেওয়া উচিত তা ব্যবহারের আগে।

স্বস্তিক চিহ্নকে সর্বদা নিঁখুত করে আঁকুন

আপনি বাড়িতে বা মন্দিরে যেখানে স্বস্তিক চিহ্ন দিতে চান তবে তা সেই চিহ্ন খুব স্পষ্ট এবং সুন্দর হওয়া উচিত। অস্পষ্ট এবং পাপপূর্ণ স্বস্তিক চিহ্ন তৈরি করা থেকে বিরত থাকুন। পুজোর সময় যদি কেউ আঁকাবাঁকা স্বস্তিক চিহ্ন দেখেন তবে পুজো সঠিক ভাবে সম্পন্ন হয় না।

আরও পড়ুন- বৈশাখ মাস কেমন প্রভাব ফেলবে মীন রাশির উপর, দেখে নিন

উল্টে স্বস্তিক কখনোই আঁকবেন না

অনেকে তাদের ইচ্ছাগুলি পূরণের জন্য মন্দিরে উল্টো স্বস্তিক তৈরি করেন। স্বস্তিক চিহ্ন মন্দিরে তৈরি করা যেতে পারে তবে ঘরে তৈরি করা উচিত নয়। বাড়িতে সোজা স্বস্তিক চিহ্ন বানানো শুভ মনে করা হয়।

কুমকুম দিয়ে স্বস্তিক বানান

প্রতিদিনের পুজোর কাজে এবং অন্যান্য সাধারণ উপাসনায় কুমকুম দিয়ে স্বস্তিক চিহ্ন তৈরি করা উচিত। বৈবাহিক জীবনের সমস্যাগুলি দূর করতে যদি কেউ পুজো করেন, তবে আপনার উচিত হলুদ দিয়ে স্বস্তিক চিহ্ন তৈরি করা।

বাস্তু দোষের শেষ হয় স্বস্তিক চিহ্ন দিয়ে

বাড়ির মূল প্রবেশপথে শুভ লক্ষণ তৈরির রীতি রয়েছে। স্বস্তিক চিহ্ন যদি প্রধাণ দরজায় আঁকা যায়, তবে বাস্তুর অনেক ত্রুটি কাটিয়ে উঠতে পারে। এই চিহ্নের ফলে ঘরের নেগেটিভ শক্তি দূর হয়ে পজেটিভ শক্তি প্রবেশ করতে সাহায্য করে।