অনেক সংস্কৃতির মধ্যেই জ্যোতির্বিজ্ঞানের ঘটনাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। ভারতীয়, চীনা ও মায়া সভ্যতার অধিবাসীগণ মহাকাশ পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে পার্থিব ঘটনাগুলির ভবিষ্যদ্বাণী করার জন্য এই বিষয়ের চর্চা এবং উন্নয়ন সাধন করেছিলেন। পশ্চিমে, জ্যোতিষশাস্ত্র প্রায়ই একজন ব্যক্তির ব্যক্তিত্বের ব্যাখ্যা করার জন্য এবং তার জন্মের সময় সূর্য, চন্দ্র, এবং অন্যান্য জ্যোতিষ্কগুলির অবস্থানের উপর ভিত্তি করে তার জীবনের ভবিষ্যদ্বাণী করার জন্য ব্যবহৃত হত। দৈনন্দিন জীবনে অনেক সময় সম্পর্কে সমস্যা দেখা দিতে পারে কিন্তু তাই বলে সামান্য় তর্ক বা ঝগড়া একটা সম্পর্কের ভাঙনের কারণ হতে পারে ৷ তবে জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে আপনার সম্পর্ক সারাজীবন টিকিয়ে রাখতে রাশি অনুযায়ী সঙ্গী বেছে নিন। একটা ভালো সম্পর্ক টিকবে কিনা তা অনেকটাই নির্ভর করে উভয়ের রাশির উপর।

আরও পড়ুন- এই মাস কেমন প্রভাব ফেলবে ধনু রাশির উপর, দেখে নিন

মেষ রাশির জাতক-জাতিকার সঙ্গে তুলা রাশির সম্পর্ক হলে তা হবে চোখে পরার মতন। মেষ ও তুলা রাশির চরিত্রগত বৈশিষ্ট্য ভিন্ন হলেও এদের রসায়ন শুভ হয়। এই সম্পর্ক বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলে এদের সম্পর্ক অপজিট অ্যাট্রাক্সন এর কারণে একেবারে অন্য স্বাদের হয়। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মেষ রাশির সঙ্গে সিংহকে জুটি হিসেবে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়।

বৃষ রাশির বিপরীত স্বভাবের হওয়ার কারণে এই রাশির সঙ্গে কর্কটের জুটি বেশ আকর্ষনীয় হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বৃষ জাতক-জাতিকার জন্য উপযুক্ত রাশি হল কন্যা রাশির জাতক-জাতিকা। অনেক ক্ষেত্রে আবার পাত্র পাত্রীর বৃষ রাশি হলেও সম্পর্ক শুভ হয়। 

মিথুন রাশির অপজিট অ্যাট্রাক্সন এর কারণে একেবারে অন্য স্বাদের সম্পর্ক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বৃশ্চিকের। এই জুটি মানিয়ে নিতে পারলে একেবারে উইনিক জুটি। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মিথুনের সঙ্গে তুলা ও সিংহ রাশির সম্পর্ক গভীর হয়। এই রাশির সবচেয়ে ভালো বন্ধু হতে পারে মেষ এবং কর্কট। 

আরও পড়ুন- কেমন কাটবে সোমবারের সারাদিন, দেখে নিন রাশিফল

কর্কট রাশির উপযুক্ত সঙ্গী রাশি হল কন্যা। জীবনসঙ্গী হিসেবে কন্যা রাশিকে অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত কর্কটের। কন্যা রাশি কর্কটের জীবনকে অনেকভাবে প্রভাবিত করতে পারে। তবে, চরিত্রগত বৈশিষ্ট্য ভিন্ন হওয়ার কারণে কর্কটের সঙ্গে মকর রাশির সম্পর্ক হলে এদের রসায়ন শুভ হয়।

সিংহ রাশির সঙ্গী হওয়ার সবচেয়ে উপযুক্ত রাশি হল মিথুন ও মীন রাশি। এই রাশির জাতকের সবচেয়ে বড় শত্রু রাশি হল সিংহ নিজেই। তাই সব সময় সিংহ রাশি কে এড়িয়ে চলাই ভালো। তবে অপজিট অ্যাট্রাক্সন এর কারণে একেবারে অন্য স্বাদের সম্পর্ক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে কুম্ভ রাশির সঙ্গে। সিংহের সঙ্গে মানিয়ে চলতে পারলে একেবারেই ভিন্ন স্বাদের সম্পর্কের রসায়নের সম্ভাবনা থাকে।