শরীরের বিভিন্ন অংশে তিল খুবই সাধারণ বিষয়ে। তবে প্রাচীন শাস্ত্র অনুযায়ী, এই বিষয়টি অতটাও সাধারণ নয়। কারণ, শরীরের বিভিন্ন অংশে থাকা তিল বা আঁচিল নাকি ইঙ্গিত দিতে পারে আমাদের জীবন সম্পর্কে নানা তথ্য। জ্যোতিষীরা যেমন আমাদের হাতের রেখা দেখে ভাগ্য গণনা করেন। ঠিক সেই রকম ভাবেই শরীরের বিভিন্ন অংশের তিল দেখে ভবিষ্যৎ সম্পর্কে ধারণা করা যায়।

  • যদি আপনার ডান হাতের তালুর উপরের অংশে তিল থাকে তবে আপনাকে জীবনের নানা ক্ষেত্রে অকারণেই অপমানিত হতে হবে। নিজের ভুল না থাকলেও নানান ভুল কাজে জড়িয়ে পরে সম্মানহানির আশঙ্কাও প্রবল থাকে। 
  • বাঁ হাতের কনিষ্ঠার নিচের দিকে তিল থাকলে তাদের সুস্থ জীবনে আচমকাই নানান খারাপ ঘটনা ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই প্রতিনিয়ত সাবধানে থাকুন।
  • আবার হাতে শনির ক্ষেত্রে যদি তিল থাকে তবে জাতকের ব্যবসায়িক দিক থেকে দুর্নামের ভয় থাকে। সন্দেহপ্রবণতায় ভুগতে থাকেন। এদের জীবনে শত্রুর সংখ্যা অধিক হয়।
  • হাতে রবির ক্ষেত্রে তিল থাকলে চোখের রোগ হয়। এছাড়া হার্টের সমস্যায় ভোগার আশঙ্কা থাকে। এরা জনপ্রতিনিধি হলে প্রতারণার শিকার হন। আবার হাতের আয়ু রেখায় তিল থাকলে জাতক প্রায়ই অসুস্থ থাকে। শারীরিক অবস্থা ভালো যায় না।
  • মঙ্গলের ক্ষেত্রে তিল থাকলে যুদ্ধে অথবা সংঘর্ষে মৃত্যুর আশঙ্কা থাকে। কারও কারও ক্ষেত্রে আবার গুরুতর অসুস্থতায় অস্ত্রোপচারের পূর্বাভাস পাওয়া যায়। আবার হাতের তালুর শনির ক্ষেত্র থেকে বুধের ক্ষেত্র অবধি যে রেখা থাকে তাকে হৃদয় রেখা বলে। এ রেখায় তিল থাকলে এরা প্রায়ই অন্যের আচরণে কষ্ট পেয়ে আবার কখনও এরা নির্দয়, কঠোর এবং স্বার্থপর হয়ে পড়েন।   
  • সে রকমই হাতের তালুর শুক্রের ক্ষেত্রে তিল থাকলে জাতক প্রেমে সুখী হয় না। সঙ্গীর সঙ্গে অশান্তির আশংঙ্কা বাড়তে থাকে। আবার হাতের তালুর চন্দ্রের জায়গায় তিল থাকলে ডায়াবেটিকস, ফুলারোগ, লিভার রোগ, সর্দিজ্বর সহ নানান শারীরির অসুস্থতায় ভুগতে থাকে।