বাড়ির দোষ অপসারণ করার জন্য বাস্তুতে অনেক পদ্ধতির বর্ণনা রয়েছে। বাস্তু ভারতে এবং চিনে ফেং শুই হিসেবে প্রচলিত। ভারতেও চাইনিজ আর্কিটেকচার ফেং শুইয়ের জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। বাস্তুর মতে, বাড়ির সাজ-সজ্জার জন্য এবং নেগেটিভ শক্তি দূর করতে আপনি চাইনিজ ব্যাম্বু বা বাঁশ গাছ লাগাতে পারেন। এই গাছটি পজেটিভ শক্তি বাড়ায় এবং নেগেটিভ শক্তি দূরে রাখে।

বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে, বাস্তু মতে প্রতিটি বস্তুর মধ্যেই অন্তর্নিহিত কিছু থাকে যা আমাদের জীবনে প্রভাব বিস্তার করে। সেই সমস্ত জিনিস মধ্যে রয়েছে কিছু ইনডোর প্ল্যান্টও। শুনতে অবাক লাগলেও এমন কিছু গাছ আছে যা আমাদের জীবনে প্রভাব বিস্তার করতে সক্ষম। বাঁশ গাছ বিশেষ করে এই চাইনিজ ব্যাম্বু শুধু বাড়িতেই নয় আমাদের চিন্তায়ও পজেটিভনেশ বাড়ায় এবং মনকে শান্ত রাখে। অহেতুক মানসিক চাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যায় এই গাছ ঘরে রাখলে। এই গাছটি এটি সৌন্দর্যের কারণে এটি ঘরে রাখার একটি রীতি রয়েছে।

 বাড়িতে চাইনিজ ব্যাম্বু রাখার শুভ জায়গা-

এই গাছটি শোওয়ার ঘরে রাখতে পারেন। এটি স্বামী এবং স্ত্রীর মধ্যে একটি প্রেমের সম্পর্ক বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে বলে মনে করা হয়।

চাইনিজ ব্যাম্বু বাড়ির উত্তর-পূর্ব বা উত্তর দিকে রোপণ করা যায়। এই দিকে চাইনিজ ব্যাম্বু স্থাপন করলে ঘরে শান্তির পরিবেশ বজায় থাকে।

চাইনিজ ব্যাম্বু গাছটিকে এমন জায়গায় রাখবেন না যেখানে সূর্যের আলো আসে, অন্যথায় এই গাছটি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

গাছের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার জন্য বিশেষ যত্ন নেওয়া উচিত। এর চারপাশে নোংরা জমতে দেবেন না। 

এই গাছটি শুকিয়ে যাওয়া অশুভ লক্ষণ। যদি এই গাছ কোথাও থেকে হলুদ হয়ে যায়, তবে সেই অংশটি দ্রুত সরিয়ে ফেলা উচিত।

এই উদ্ভিদটি বন্ধু বা আত্মীয়দের উপহার হিসাবেও দেওয়া যেতে পারে। এতে আপনারও সৌভাগ্য বৃদ্ধি হতে পারে।