রাগকে বশে আনতে প্রথমে বাঁ পা ফেলুন, রইল জ্যোতিষমতে ৫টি সহজ উপায়

| May 27 2022, 11:56 PM IST

রাগকে বশে আনতে প্রথমে বাঁ পা ফেলুন, রইল জ্যোতিষমতে ৫টি সহজ উপায়

সংক্ষিপ্ত

রাগ হল একটি মানসিক সমস্যা। যা আমারদের মেজাজ আর পারিপার্শ্বিক পরিবেশ ও নক্ষত্রের গতিবিধি দ্বারা নির্ধারিত হয়ে। উদাহরণ হিসেবে বলা হয় বিশ্চিক , সিংহ ও বৃষ রাশির ব্যক্তিরা তাদের দৃঢ়় ব্যক্তিত্বের কারণে সমস্যায় পড়ে। এদের রাগ অন্যদের তুলনায় অনেক বেশি।

রাগ হল যে কোনও মানুষের সবথেকে বড় শত্রু। রাগের কারণে অনেক মানুষের অনেক ক্ষতি হয়ে যায়। আবার এমন কোনও অনেক মানুষ রয়েছেন যাঁরা অল্পতেও মেজাজ হারিয়ে ফেলেন। আর তাতে নিজের জীবনের ক্ষতি নিজেই ডেকে আনেন। রাগের কারণে অনেক সময় অনেকেই ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে। তাই রাগকে বশে আনা খুবই জরুরি। আর এর জন্য জ্যোতিষশাস্ত্রমতে রয়েছে পাঁচটি উপায়। 

রাগ হল একটি মানসিক সমস্যা। যা আমারদের মেজাজ আর পারিপার্শ্বিক পরিবেশ ও নক্ষত্রের গতিবিধি দ্বারা নির্ধারিত হয়ে। উদাহরণ হিসেবে বলা হয় বিশ্চিক , সিংহ ও বৃষ রাশির ব্যক্তিরা তাদের দৃঢ়় ব্যক্তিত্বের কারণে সমস্যায় পড়ে। এদের রাগ অন্যদের তুলনায় অনেক বেশি। তাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে এদের ব্যক্তি ও পেশাগত জীবন। তবে এরা এদের পরিবেশ ও কাজের ক্ষেত্র দিয়ে রাগকে নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেন। 

Subscribe to get breaking news alerts

এবার এক নজরে দেখে নিন রাগকে বশে আনার পাঁচটি উপায় - যা জ্যোতিষশাস্ত্র সম্মত। 
১. সর্বদা আপনার চারপাশ পরিষ্কার রাখুন। মনে করা হয় রাগ এমন মানুষদের থাকে যাদের চারপাশ পরিচ্ছন্ন নয়। বাড়িতে সকাল ও সন্ধ্যায় একটি করে প্রদীপ জ্বালান। 

২. জ্যোতিষশাস্ত্রমতে যাদের মধ্যে রাগের সমস্যা রয়েছে তারা কখনই পরিবার ও কর্মক্ষেত্রে মহিলাদের অপমান করবেন না। এদের নিত্যদিন হনুমানের পুজো করা উচিৎ। হনুমান চাল্লিসা পাঠ করতে উপকার পাবেন। 

৩. নিরামিষাশ আহার রাগ কমাতে সাহায্য করে। তামসিক খাবার যেমন পেঁয়াজ, রসুন এগুলি এড়িয়ে চলুন। মশলাদার খাবার ও প্রক্রিয়াদত খাবার না খাওয়াই শ্রেয়। চিন একেবারেই খাবেন না। অ্য়ালকোহল, ধূমমানের নেশা ত্যাগ করুন। কোনও রকম নেশাই এদের পক্ষে ভাল নয়। 

৪. দিনের একটা বিশেষ সময় পরিচিত আর আত্মীয়ের সঙ্গে কথা বলুন। ঘুম থেকে উঠে পৃথিবীমাতাকে প্রানাম করুন। ঘুম থেকে উঠে প্রথমে বাঁ পা মাটিতে রাখুন। তারপরে ডান পা ফেলুন। মনে রাখবেন বিছানা ছাড়ার পর কমপক্ষে ১৫ মিনিট কারও সঙ্গে কথা বলবেন না। এটি নিয়মিত করলে রাগ কমে যাবে। 

৫. যারা অল্পতেই রেগে যায় তাদের রাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য রুপোর আংটি পরা জরুরি। কারণ রুপোর সঙ্গে চাঁদের যোগ রয়েছে। চাঁদ শান্ত। মনকে শান্ত করে। যারা দ্রুত রেগে যায় তাদের হাতে রুপোর আংটি থাকলে সহজে রাগ পড়ে যায়।