আধুনিক যুগে বাস্তু শাস্ত্রের প্রয়োজনীয়তা আবার নতুন করে দেখা দিয়েছে৷ বিশ্বায়নের যুগে মানুষের হাতে প্রচুর অর্থ, সম্পদ এলেও সুখ-শান্তি বড় একটা নেই। তাই নাগরিক জীবনে বাস্তুতন্ত্রের ভূমিকা অনস্বীকার্য। সেটা কোনও ক্ষেত্রেই হোক, বিয়ে থেকে শুরু করে বাড়ি তৈরী সবেতেই বাস্তুর প্রভাব আছে। তাহলে জেনে নেওয়া যাক, বাস্তুর সেই গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম গুলি-

 আরও পড়ুন, কুম্ভ রাশির আজ সাফল্য লাভের যোগ রয়েছে, দেখে নিন আপনার রাশিফল

আসলে প্রাচীন কাল থেকেই মনি-ঋষিরা বাস্তুতন্ত্রের নিয়ম কানুনের কথা বলে এসেছেন। তাই খুব সহজেই সেই নিয়মগুলি পালন করলেই আগের থেকে ভাল সময় প্রত্য়েকের কাছেই ফিরে আসে। পূর্বদিকে মাথা রেখে শয়ন করা অত্যন্ত শুভ৷ শরীর মন চনমনে থাকে৷ পশ্চিমদিকে মাথা রেখে শয়ন করলে মন চিন্তাগ্রস্থ হয়৷ খিটখিটে মেজাজ প্রান্তি হয়৷ উত্তরদিকে মাথা রেখে শয়ন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ কারণ শরীর জরাগ্রস্থ হয়৷ দীর্ঘমেয়াদী রোগে ভোগার সম্ভাবনা তৈরি হয়৷ দক্ষিণদিকে মাথা রেখে শয়ন করা সব থেকে শুভ এবং তা যথেষ্ট বিজ্ঞান সম্মতও বটে৷ এই দিকে মাথা রেখে শয়ন করলে আয়ুবৃদ্ধি হয়৷ নীরোগ জীবন লাভ হয়৷

আরও পড়ুন, বাড়িতে এই মূর্তিগুলি ভুলেও স্থাপন করা উচিত নয়, ডেকে আনতে পারে দুর্ভাগ্য

 আপনার ফ্ল্যাট অথবা বাড়ির উত্তর বা পশ্চিম দিকের পূর্ব বা উত্তরদিকে মুখ করে পড়ার জন্য চেয়ার, টেবিল, উজ্জ্বল আলোর ব্যবস্থা রাখুন৷ পড়াশোনায় দ্রুত সাফল্য লাভে এই ব্যবস্থা খুবই ফলপ্রসূ হবে। রান্নাঘরের আদর্শ স্থান হল অগ্নিকোণ অর্থাত্ দক্ষিণ-পূর্বদিক৷ এছাড়া পূর্বদিকে মুখ করে রান্না করাও মঙ্গল জনক৷ রান্নাঘর কোনও অবস্থাতেই উত্তর-পূর্ব, উত্তর-পশ্চিম বা বাড়ির মাঝখানে অর্থাত্ ব্রহ্মস্থানে করা উচিত নয়৷ ফ্রিজ রান্না ঘরেই রাখতে হলে তা রাখুন রান্নাঘরের উত্তর-পশ্চিম দিকে৷ বাথরুম বা শৌচাগার নির্মাণের ক্ষেত্রে অত্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন৷ ঈশান কোণ অর্থাত্‍ উত্তর-পূর্ব দিকে কোনও মতেই বাথরুম নির্মাণ করবেন না৷ এক্ষেত্রে দক্ষিণ বা পশ্চিমদিকে শৌচাগার নির্মাণ করতে পারেন৷ শাওয়ার বেসিন স্থাপন করুন বাথরুমের উত্তর, পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিকে৷ এভাবে বাস্তুর নিয়ম মেনে বাড়ি তৈরি করলেই  জীবনে সর্বোচ্চ সাফল্য়, সার্বিক শান্তি এবং অর্থ ফিরে ফিরে আসবে।
 

আরও পড়ুন, কর্মজীবনে উন্নতির জন্য মেনে চলুন বাস্তুর এই নিয়মগুলি, কাটিয়ে উঠুন বাধা