বাস্তুতন্ত্র এবং বাস্তু বিচার বহু প্রাচীন যুগ থেকেই চলে আসছে। নতুন বাড়ি বা ফ্ল্যাট থেকে শুরু করে ঘরের আসবাব, বাগান তৈরি প্রতিটা ক্ষেত্রই হতে পারে বাস্তু মেনে। কারণ এর রয়েছে অনেক সুফল, এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের। বাস্তুশাস্ত্র, এই বাস্তু শব্দটি এসেছে বস্তু থেকে। বাস্তু বলতে সব কিছুকেই বুঝায়- তা একটি স্থান হতে পারে- কিংবা একটা বাড়িও হতে পারে। সভ্যতার শুরু থেকেই ভারতীয়  উপমহাদেশে শিল্পচর্চাকে ঊর্ধ্বে স্থান দেয়া হয়েছে। স্থাপত্যশৈলী উপবেদের অন্যতম বিষয়। 

এই বাস্তু মতে যদি আপনার আর্থিক সমস্যা থেকে থাকে তবে পার্সে সাধারন এই উপাদান রাখলে আপনি সহজেই সেই আর্থিক সমস্যা কাটিয়ে উঠতে পারবেন। টাকার প্রয়োজন সকলেরই থাকে। তবে আর্থিক সমস্যার কারণে অন্নাভাব বা সাধারণভাবে দিন কাটানো সমস্যা দেখা দিলে সেই পরিস্থিতি অত্যন্ত জটিল হয়ে ওঠে। তাই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে একবার ব্যবহার করে দেখতে পারেন সাধারণ এই উপাদান। হিন্দু ধর্ম অনুযায়ী লক্ষ্মী সম্পদের দেবী। তাই লক্ষ্মীকে প্রসন্ন করতে পারলেই আর্থিক সমস্যা কাটিয়ে উঠতে পারবেন। জেনে নিন নিয়মগুলি- 

মহিলাদের পার্সে যদি এক টুকরো আয়না থাকে, তবে মনে করা হয় এটি আর্থিক উন্নতির বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। পাশাপাশি কখনও নোংরা বা খাওয়ার হাতে পার্স থেকে টাকা বেড় করবেন না। হাত ধুয়ে পরিষ্কার করে তবেই টাকার ব্যবহার করুন। পুজোতে দেওয়া একটা কাঁচা টাকা পার্সে যত্ন করে রেখে দিন। এতেও আর্থিক অবস্থার উন্নতি ঘটবে। বিশেষ করে পুরুষেরা যদি কখনও মাছের আঁশ লাগা টাকা পেয়ে থাকেন, তবে জানবেন তা অত্যন্ত মঙ্গলজনক আপনার আর্থিক সমস্যা দূর হওয়ার দিন আসন্ন। সেই টাকা পার্সে যত্ন করে রেখে দিন। এছাড়া পার্সে একটি ছোট্ট কাগজের টুকরোর মধ্যে এক চিমটে লবন নিয়ে সুতোয় বেঁধে রেখে দিন। ঠিক তেরো দিন পরে কাগজটি পুকুর বা কোনও জলাশয়ে ফেলে আবার অন্য একটি কাগজে লবন দিয়ে পার্সে রেখে দিন। মনে করা হয় নেগেটিভ শক্তি দূর করতে সাহায্য করে লবন। এই কয়েকটি নিয়ম আপনাকে আর্থিক স্থিতি এনে দিতে পারে।