Asianet News BanglaAsianet News Bangla

ঠাকুর ঘরের এই ১০ ভুল, জীবনে আনতে পারে চরম বিপর্যয়

  • প্রতিটি বাড়িতেই একটি মন্দির রয়েছে
  • মন্দির থাকা মানে ঘরে শান্তি এবং সুখ বয়ে আনে
  • আমরা অজান্তেই বেশ কিছু ভুল করে বসি
  • আমাদের সৌভাগ্য দুর্ভাগ্যে পরিণত হয়
These 10 mistakes of Puja room can bring extreme disaster in life BDD
Author
Kolkata, First Published Oct 8, 2020, 1:41 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আমাদের হিন্দু ধর্মে সাধারণত প্রতিটি বাড়িতেই একটি মন্দির রয়েছে। ঘরে মন্দির থাকা মানে ঘরে শান্তি এবং সুখ বয়ে আনে। এতে বাড়ির লোকদের মধ্যেও ঈশ্বরের প্রতি ভালবাসা এবং বিশ্বাস বজায় থাকে। তবে প্রায়শই দেখা যায় যে ঠাকুর ঘর তৈরি এবং সাজানোর সময় আমরা অজান্তেই বেশ কিছু ভুল করে বসি। এই রকম ভুলের ফলে উপাসনা করলেও যথাযথ উপকার পাওয়া যায় না উল্টে ঈশ্বর রাগান্বিত হন। যার কারণে আমাদের সৌভাগ্য দুর্ভাগ্যে পরিণত হয়। আসুন, জেনে নিন ঘরে মন্দির তৈরি করার সময় আমাদের যে ১০ টি জিনিস মনে রাখা উচিত।  

বাস্তু শাস্ত্রের মতে, বাড়ির মন্দিরটি সর্বদা কেবল পূর্ব বা উত্তর দিকেই তৈরি করা উচিত। বাড়ির ঠাকুর ঘরে কখনও একাধিক প্রতিমা বা ছবি রাখবেন না এবং যদি তা হয় তবে সেই প্রতিমাগুলি বা ছবিগুলি মুখোমুখি রাখা উচিত নয়। ঠাকুর ঘরে যদি ঈশ্বরের অনেকগুলি মূর্তি থাকে তবে প্রতিমাগুলির মধ্যে কমপক্ষে এক ইঞ্চি দূরত্ব রাখতে হবে। ঘরে কখনও নির্মিত ঠাকুর ঘরে বা ঈশ্বরের পায়ে কখনও ঘুমোবেন না। ঘরে তৈরি ঠাকুর ঘরের সামনে বা সামনে কোনও শৌচাগার না থাকা উচিত।

These 10 mistakes of Puja room can bring extreme disaster in life BDD

পূর্বপুরুষদের কখনও ঠাকুর ঘরে রাখা করা উচিত নয় বা তাদের ছবিগুলি ঠাকুর ঘরে ইনস্টল করা উচিত নয়। বাড়ির ঠাকুর ঘরে কোনও কখনও ঈশ্বরের ছবি বা ঈশ্বরের মূর্তি নিজের আকারে স্থাপন করা উচিত নয়। বাড়ির ঠাকুর ঘরে প্রতিদিন প্রার্থনা করা উচিত। দিনের বেলা বাড়ির মন্দিরটি বন্ধ করা উচিত নয়। ঠাকুর ঘরে পূজা দেওয়ার সময়, ঈশ্বরের অবশ্যই ভোগ করতে হবে, কেবল ধূপ এবং ধূপ জ্বালানো উচিত এবং উপাসনা শেষ করা উচিত নয়। শনিদেব এবং ভৈরব ভগবান প্রভৃতি দেবতার প্রতিমাগুলি বাড়ির ঠাকুর ঘরে রাখা উচিত নয়। ঠাকুর ঘরে যে দেবতার পূজা হয় সেই দেবতার মূর্তি বা ছবি ভাঙা বা ছেড়া থাকা উচিত নয়।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios