বাস্তু শাস্ত্রের মতে, নেতিবাচক শক্তির কারণে ঘরের পরিবেশটি উত্তেজনাপূর্ণ, অন্যদিকে ইতিবাচক শক্তি ঘরে সুখ নিয়ে আসে। ঠিক এই কারণে প্রত্যেকেই চায় যে তার বাড়িতে সবসময় ইতিবাচক শক্তি বজায় থাক। বাস্তুশাস্ত্র মতে, যে বাস্তু দোষের কারণে ঘরে নেতিবাচক শক্তি প্রবেশ করে এবং এই বাস্তু দোষগুলি আপনার ঘরের বাইরেও ঘটতে পারে। প্রায়শই আমরা বাড়ির বাস্তু দোষের দিকে মনোযোগ দিই তবে বাড়ির বাইরে বাস্তু দোষকে উপেক্ষা করি। আজ আমরা আপনাকে বলছি যে আপনার বাড়ির সামনে এই জিনিস গুলিও বাড়িতে নেতিবাচক শক্তি তৈরি করতে পারে। জেনে নিন সেগুলি কি কি-

আরও পড়ুন- কোটিপতি হওয়ার গোপন রহস্য লুকিয়ে রয়েছে এই ৩ বিষয়ে, জানায় চাণক্য নীতি

১) বাড়ির মূল প্রবেশ পথের বাইরে কোনও নোংরা জমা জল রাখা থাকা নয়। মূল ফটক থেকে বাড়িতে ইতিবাচক শক্তির প্রবেশ হয়। মা লক্ষ্মীও মূল দরজা থেকেই ঘরে প্রবেশ করেন। তাই বাড়ির মূল গেটের বাইরে কোনও নোংরা জল জমে থাকা উচিত নয়। ঘরের পশ্চিম দিকে নোংরা জল জমতে দেবে না। আর্থিক ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে।

২) ঘরের মূল দরজার সামনে কাঁটা গাছপালা থাকা খুব অমঙ্গলের। এটি বিশ্বাস করা হয় যে এইগুলি থাকার কারণে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে সমস্যা দেখা দেয়।

আরও পড়ুন- মেষ রাশির কতটা উন্নতি হবে ডিসেম্বর মাসে, দেখে নিন

৩) বাড়ির সামনে ডাস্টবিন, আবর্জনা থাকা উচিত নয়। এটি অর্থের ক্ষতির জন্য দায়ী। এর কারণে মা লক্ষ্মীর বাড়িতে প্রবেশে বাধা পায়। ফলে আর্থিক উন্নতিও বাধা প্রাপ্ত হয়।

৪) প্রধান দরজাটি সর্বদা রাস্তার চেয়ে উঁচু হওয়া উচিত। যদি মূলটি দরজা রাস্তার থেকে নীচুতে হয় তবে এটি একটি বড় স্থাপত্য ত্রুটি হিসাবে বিবেচিত করা হয়। এতে বাড়িতে নেগেটিভ শক্তির প্রবেশের পথ প্রশস্ত হয়।

৫) বাড়ির সামনে বা প্রধান দরজায় লতা গাছ লাগানো উচিত নয়। এটিও একটি প্রধান স্থাপত্য ত্রুটি। প্রধান দরজায় এই ধরনের উদ্ভিদ আপনার শত্রুদের সংখ্যা বৃদ্ধি করে।