জ্যোতিষশাস্ত্র জ্যোতিষ্কগুলির গতি এবং অবস্থানের ভিত্তিতে, প্রাকৃতিক এবং শারীরিক লক্ষণ অথবা দুয়ের সমন্বয়ে ব্যক্তি, সমষ্টি বা দেশের ভবিষ্যৎ নিরুপণের প্রায়োগিক দিকটি নিয়ে অভিজ্ঞতাভিত্তিক জ্ঞানের সংগ্রহ হিসেবে বিস্তার লাভ করে। জ্যোতিষশাস্ত্র প্রায়ই একজন ব্যক্তির ব্যক্তিত্বের ব্যাখ্যা করার জন্য এবং তার জন্মের সময় সূর্য, চন্দ্র, এবং অন্যান্য জ্যোতিষ্কগুলির অবস্থানের উপর ভিত্তি করে তার জীবনের ভবিষ্যদ্বাণী করার জন্য ব্যবহৃত। 

আরও পড়ুন- করোনাভাইরাস সম্পর্কিত ভবিষ্যদ্বাণী, জেনে নিন এই বিষয়ে কী বলছেন এই জ্যোতিষ বিশেষজ্ঞ

এই জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে আমাদের রোজকার দৈনন্দিন জীবনে এমন কিছু বিষয় আছে যা সহজেই আমাদের জীবনে পরিবর্তন আনতে পারে। এই পরিবর্তন ভালো বা খারাপ তা নির্ভর করে আমাদের কৃত কার্যের উপর। আজ সে রকমই এক বিষয় সম্বন্ধে জানবো যা আমাদের প্রতিদিনের জীবন যাত্রার এক অংশ। আর তা হল শুতে যাওয়া। আমরা কোন দিকে মাথা দিয়ে শুতে যাচ্ছি তার উপরও নির্ভর করে আমাদের জীবনের উন্নতি। জেনে রাখুন কোন দিকে মাথা দিয়ে ঘুমোলে মিলবে সুফল আর কোন দিকে মাথা দিলে হতে হবে সমস্যার সন্মুখীন-

আরও পড়ুন- আজকের দিনে কোন উপহারে চমকে দেবেন মা-কে, জেনে নিন রাশি অনুযায়ী

জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে, দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে মাথা করে শুলে শরীরে এনার্জি বৃদ্ধি পায়। তাই এই দিকে মাথা দিয়ে শোওয়া অভ্যাস করলে সুফল পাবেন। যারা পশ্চিমদিকে মাথা করে শুতে যান তারা সহজেই নাম, যশের অধিকারী হন। এদের সমাজে সন্মান খ্যাতি অনেক বেশি। উত্তর দিকে মাথা দিয়ে শুলে নানান সমস্যার সন্মুখীন হতে হয়। বাস্তু মতে এই দিকে মৃত মানুষের মাথা রাখা উচিত। ফলে এই দিকে মাথা দিয়ে ঘুমলে বড় কোনও রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে। পূর্বদিকে মাথা দিয়ে শোওয়া অভ্যাস করলে তাতে মনসংযোগ, স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি পায়। তাই এই দিকে মাথা করে শোওয়া উচিত। দক্ষিণ দিকে মাথা দিয়ে শোওয়ার অভ্যাসও ভালো। এই দিকে মাথা দিয়ে শোওয়ার ফলে ধন সম্পদ বৃদ্ধি পায়, সংসারে সুখ আসে।